সিংগাইরে ৩ জন দিয়ে চলছে উপজেলা আওয়ামী লীগ

163

মাসুম বাদশাহ, সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি : জাঁকজমকপূর্ণভাবে মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন সম্পন্ন হয়েছে গত ৩০ জুলাই। কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতে ৩টি পদের নাম ঘোষণা করা হয়। এতে সভাপতি পদে কন্ঠশিল্পী মমতাজ বেগম এমপি, সাধারণ সম্পাদক পদে মো. শহিদুর রহমান শহিদ ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পদে মো. সায়েদুল ইসলাম মনোনীত হন।

সম্মেলনের পর পেরিয়ে গেছে ৫ মাস। এখনো গঠন হয়নি পূর্ণাঙ্গ কমিটি। ৩টি পদ দিয়েই চলছে সিংগাইর উপজেলা আওয়ামী লীগ। এ নিয়ে দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করেছে। আওয়ামী লীগের উপজেলা কমিটিতে পদ বাগিয়ে নিতে সাবেক, ত্যাগী ও নব্য আওয়ামী লীগ নেতারা দৌঁড়-ঝাঁপ শুরু করেছেন। সাবেক উপজেলা কমিটি থেকে অনেকে ইউনিয়ন পর্যায়ে দায়িত্বশীল পদ নিয়ে এখন পুনরায় উপজেলা কমিটিতে পদ নিতে মরিয়া হয়ে ওঠেছেন। রাজনৈতিক মাঠে কোনঠাসায় থাকা সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা দেওয়ান সফিউল আরেফিন টুটুল অনুসারীরাও পদ পেতে লবিং করছেন।

আরও পড়ুন : সিংগাইরে পৃথক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ১৮লক্ষ টাকার ক্ষয়-ক্ষতি

এদিকে, আগামী ১১ ডিসেম্বর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। তার আগে গত ৪ ডিসেম্বর দলীয় কার্যালয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ১০ ডিসেম্বর বিএনপির মহাসমাবেশের নামে নাশকতারোধ ও জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন নিয়ে আলোচনা হয়। কিন্তু পূর্ণাঙ্গ কমিটি নিয়ে কোনো আলোচনা না হওয়ায় হতাশা বিরাজ করছে পদ প্রত্যাশীদের মধ্যে। তবে দলীয় সূত্রে জানা গেছে, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে উপজেলা আওয়ামী লীগকে ঢেলে সাজানো হবে। সাংগঠনিক ব্যক্তিরাই দলে প্রাধান্য পাবেন।

এ ব্যাপারে সিংগাইর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শহিদুর রহমান শহিদ বলেন, মমতাজ বেগম এমপি মহোদয় মতামত ছাড়া আমি কিছুই বলতে পারছি না। তিনি আমার নেতা , তার সিদ্ধান্ত মোতাবেক পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হবে।

এদিকে, আগামী ১১ ডিসেম্বর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। তার আগে গত ৪ ডিসেম্বর দলীয় কার্যালয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ১০ ডিসেম্বর বিএনপির মহাসমাবেশের নামে নাশকতারোধ ও জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন নিয়ে আলোচনা হয়। কিন্তু পূর্ণাঙ্গ কমিটি নিয়ে কোনো আলোচনা না হওয়ায় হতাশা বিরাজ করছে পদ প্রত্যাশীদের মধ্যে। তবে দলীয় সূত্রে জানা গেছে, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে উপজেলা আওয়ামী লীগকে ঢেলে সাজানো হবে। সাংগঠনিক ব্যক্তিরাই দলে প্রাধান্য পাবেন।

এ ব্যাপারে সিংগাইর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শহিদুর রহমান শহিদ বলেন, মমতাজ বেগম এমপি মহোদয় মতামত ছাড়া আমি কিছুই বলতে পারছি না। তিনি আমার নেতা , তার সিদ্ধান্ত মোতাবেক পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হবে।

 

পেইজবুকে আমরা : fb.com/thedailyfulki