ঢাকা শনিবার, জুলাই ৩১, ২০২১
কাশিমপুরে নির্মাণাধীন কক্ষের নিচ থেকে মরদেহ উদ্ধার
  • কাশিমপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি
  • ২০২১-০৭-১৬ ০৯:৪৯:১০
 
 
 
গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৫ নং ওয়ার্ডের পশ্চিম শৈলডুবী বটতলা এলাকায় একটি নির্মাণাধীন টিনসেড কক্ষের মেঝেতে হত্যা করে পুঁতে রাখা হয়েছিল নরসুন্দর জাহিদ নামের এক যুবককে। জাহিদ দীর্ঘদিন যাবত বটতলা বাজারে দোকান ভাড়া নিয়ে সেলুনের কাজ করতেন। ১লা জুলাই নির্মাণাধীন ভবনের পাশে স্ত্রী ও কন্যাসহ বসবাস করত। 
 
জাহিদ গত ৭ জুলাই থেকে নিখোঁজ ছিলো। নিখোঁজের বিষয়ে কাশিমপুর থানায় নিহতের স্ত্রী একটি অভিযোগ দায়ের করে। 
 
 নিহত জাহিদের স্ত্রী এ প্রতিবেদককে বলেন, গত ৭ তারিখ সকালে জাহিদ তার ভাই বিদেশ থেকে এয়ারপোর্টে আসবে বলে তাকে রিসিভ করার জন্য বাসা থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি । বৃহস্পতিবার নিখোঁজ জাহিদের বাবা পঞ্চগড় থেকে এসে জাহিদের স্ত্রী এবং কন্যাকে বাড়িতে নিয়ে যায়। 
 
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, শুক্রবার (১৬ জুলাই) সকালে নির্মাণাধীন ঘরের পাশে শিশু বাচ্চারা খেলাধুলা করার এক পর্যায়ে দুর্গন্ধ বের হলে কাছে গিয়ে দেখে একজনের হাতপা। এ ঘটনা দেখে চিৎকার দিলে বাড়ির পাশের লোকজন ছুটে এসে লাশ দেখতে পেয়ে কাশিমপুর থানায় খবর দিলে পুলিশ আসে। ঘটনাস্থলে গিয়ে কোনাবাড়ী জোনের এসি সুভাষীশ ধর, কাশিমপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহবুবে খোদা'র উপস্থিতিতে লাশ উত্তোলন করা হয়। লাশের পরনের কাপড় দেখেই নরসুন্দর জাহিদকে শনাক্ত করে। লাশের ময়না তদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পাঠানো হয়েছে। এবং হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জাহিদের শেলিকা শ্যামলী বেগম ও তার স্বামী শামিম হোসেনকে ডিকে গার্মেন্টস থেকে আটক করে নিয়ে যাওয়া হয়। 
 
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছিল।
 
  •  
     
ময়মনসিংহ মেডিকেলে আরও ১৬ জনের মৃত্যু
গার্মেন্টস খোলার খবরে দৌলতদিয়ায় ঢাকামুখী যাত্রীদের ভিড়
বৈরী আবহাওয়ায়ও শিমুলিয়ায় যাত্রীদের ভিড়