ঢাকা মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৪, ২০২০
পছন্দের বিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পারবে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা
  • স্টাফ রিপোর্টার
  • ২০২০-১১-১৬ ১৯:২৩:২১

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা দেশের যেকোনো স্থানে ভর্তি হতে পারবে। স্থানান্তর হওয়া শিক্ষার্থীরা আগামী বছরের শুরুতে আগের বিদ্যালয়ের ভর্তির প্রমাণ দেখালে ভর্তি করানো যাবে। সম্প্রতি প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই) থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দেশের সকল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

দেশে করোনা সংক্রামণের ভয়ে অনেকে ঢাকা থেকে স্থায়ীভাবে নিজ গ্রামের বাড়িতে বসবাস করছেন। অনেকের সন্তানরা রাজধানীর বিভিন্ন বিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত থাকলেও ছাড়পত্র না নিয়ে চলে গেছেন। অনেকে আবার শহরে ফিরে এলেও তাদের সন্তানদের গ্রামের বাড়িতে রেখে ঢাকায় চলে এসেছেন।

এসব শিক্ষার্থীরা তার সুবিধামতো দেশের যেকোনো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে ভর্তি হতে পারবে। এ জন্য আগের বিদ্যালয়ের অধ্যয়নের প্রমাণপত্র জমা দিয়ে নতুন স্থানে ভর্তি হতে পারবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ডিপিই’র মহাপরিচালক এ এম মনসুর আলম সোমবার (১৬ নভেম্বর) বলেন, ‘দেশের যেকোনো স্থান থেকে স্থানান্তর হওয়া শিক্ষার্থীরা তাদের পচ্ছন্দমতো বিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পারবে। যে যে ক্লাসে পড়তো তার প্রমাণ নিয়ে নতুন স্থানে ভর্তি হতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘সম্প্রতি এ ধরণের একটি নির্দেশনা দেশের সকল জেলার প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের কাছে পাঠানো হয়েছে। এর ফলে বছরের শুরুতে একজন শিক্ষার্থী তার সুবিধামতো বিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পারবে।

এদিকে করোনা পরিস্থিতির কারণে গত ১৭ মার্চ থেকে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। বর্তমানে সংসদ টেলিভিন, বাংলাদেশ বেতার ও কমিউনিটি রেডিওতে শ্রেণিপাঠ সম্প্রচার হচ্ছে। এর মাধ্যমে প্রতিদিন বাড়ির কাজ দেয়া হচ্ছে। অনেক শিক্ষার্থী বাড়ির কাজ সম্পন্ন করছে। অনেকে আবার এ কার্যক্রমের আওতার বাহিরে রয়েছে।

জানা গেছে, বর্তমান পরিস্থিতিতে চলতি বছর প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলার মতো পরিস্থিতি নেই। এ কারণে পরবর্তী ক্লাসে অটোপাশ দেয়ার চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। তবে এ বিষয়ে এখনো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়া হয়নি। মাঠ কর্মকর্তা ও শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানান ডিপিই মহাপরিচালক।

‘অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ আশাব্যঞ্জক নয়’
প্রাথমিকের সব শিক্ষার্থীকে পরবর্তী ক্লাসে উন্নীত করার সিদ্ধান্ত
বিভাগীয় শহরে ঢাবি ভর্তি পরীক্ষা, এমসিকিউ ৪০ লিখিত ৪০