ঢাকা মঙ্গলবার, এপ্রিল ১৩, ২০২১

ধামরাইয়ে বিলের মাটিকাটা নিয়ে হামলায় আহত ৪, যুবলীগ নেতাসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা
  • ধামরাই প্রতিনিধি
  • ২০২১-০৪-০৮ ১৯:৪৬:৫২

ধামরাইয়ের রঘুনাথপুর বিলের মাটিকাটা নিয়ে মাটি ব্যবসায়ীর অফিসে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটের ঘটনা ঘটেছে। এতে চারজন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় বুধবার ধামরাই থানায় যুবলীগ নেতা সানাউল হক সুজনসহ ২৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। পরে দুপুরেই পুলিশ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছে- আজাহার আলী, সানি ও বিশ^জিৎ ঘোষ।
এলাকাবাসী জানান, ধামরাইয়ের নান্নার ইউনিয়নের রঘুনাথপুর বিলের মাটিকাটা নিয়ে মঙ্গলবার রাতে জলসিন বাজারে স্কুলমার্কেটের অফিসে স্থানীয় আব্দুল খালেক, শাজাহান মিয়া, কিয়ামুদ্দিন, আজাহার আলীসহ ১৩-১৫ জনের বৈঠক বসে। মাটির ব্যবসার কর্তৃত্ব নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায় আজাহার আলী তার ছেলে সানির নেতৃত্বে ধামরাই পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সানাউল হক সুজন, নান্নারের বিশ^জিৎ ঘোষসহ ২৫-৩০ জন লাঠিসোটা নিয়ে মাটি ব্যবসায়ী আব্দুল খালেক, সাবেক ইউপি সদস্য কিয়ামুদ্দিন, খোকন, বুলবুল, বৈশাক মিয়ার ওপর অর্তকিতভাবে হামলা চালায়। এসময় আব্দুল খালেককে অফিস কক্ষে আটকিয়ে রাখে এবং অফিসের সাটার ও চেয়ার ভাংচুর চালিয়ে সাড়ে তিন লাখ টাকা লুটে নেয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ আব্দুল খালেককে উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় বুধবার আব্দুল খালেক বাদী হয়ে পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সানাউল হক সুজন, আজাহার আলী, সানি, বিশ^জিৎ ঘোষসহ ২৫ জনকে আসামি করে ধামরাই থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
এ বিষয়ে ধামরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের  সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা সাখাওয়াত হোসেন সাকু বলেন, পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সানাউল হক সুজনের নেতৃত্বে ২০-২৫জন সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে অফিস ভাংচুর করেছে। এটা মোটেও ঠিক করেনি। তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ ব্যাপারে যুবলীগ নেতা সানাউল হক সুজন এই হামলার সঙ্গে তিনি জড়িত নন বলে জানিয়েছেন।
ধামরাই থানার ওসি আতিকুর রহমান বলেন, হামলার ঘটনায় বুধবার সন্ধ্যাায় আজাহার আলী, সানি, বিশ^জিৎ ঘোষ নামে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যদেরও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।   

 

কুষ্টিয়ায় ফেসবুকে মামুনুল হককে নিয়ে পোস্ট দেওয়ায় আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ২৫
 গাইবান্ধায় সাংবাদিকের উপর হামলার ঘটনায় গ্রেফতার ২
সাঘাটায় আওয়ামীলীগ নেতা খুন