ঢাকা সোমবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২১
বায়ার্ন-বার্সা: ৮-২’র পর এবার ৩-০
  • স্পোর্টস ডেস্ক
  • ২০২১-০৯-১৫ ০১:৩৮:৩৩

ফল বিবেচনায় আশাবাদীরা হয়তো উন্নতির ছাপ দেখবেন। কিন্তু বাস্তবতা হলো আরো একবার বায়ার্ন মিউনিখের কাছে ধরাশায়ী স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনা। তাও কি না এবার নিজেদের ঘরের মাঠে। এবার অবশ্য শেষ ম্যাচের মতো ভরাডুবি হয়নি। তবু পরাজয়ের ব্যবধান পরিষ্কার; ৩-০ গোলের।

মঙ্গলবার রাতে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপপর্বের ম্যাচে বার্সেলোনার ঘরের মাঠ ন্যু ক্যাম্পে গিয়ে ৩-০ গোলে জিতে ফিরেছে জার্মান জায়ান্ট বায়ার্ন। টুর্নামেন্টের গত আসরে নিরপেক্ষ ভেন্যু বেনফিকার মাঠে ৮-২ গোলে জিতেছিল তারা। এবার সেই পরাজয়ের প্রতিশোধের মিশনে নেমেও জিততে পারলো না বার্সা।

দীর্ঘ ২২ মৌসুম পর চ্যাম্পিয়নস লিগের প্রথম ম্যাচে হারলো কাতালান ক্লাবটি। এর আগে ১৯৯৭-৯৮ মৌসুমে নিউক্যাসলের কাছে ৩-২ গোলে হেরেছিলো তারা। সেবার বাদ পড়ে গিয়েছিল গ্রুপপর্ব থেকেই। এবার বায়ার্নের বিপক্ষেও হজম করলো ৩ গোল; তবে দিতে পারেনি একটিও।

স্বাগতিক দল বার্সেলোনা হলেও, পুরো ম্যাচজুড়ে একচ্ছত্র আধিপত্য ছিলো বায়ার্নের। সারা ম্যাচে মাত্র ৫টি শট নিতে পেরেছে বার্সেলোনা, একটিও ছিলো না লক্ষ্যে। অন্যদিকে ১৭টি শট নিয়ে ৭টিই লক্ষ্যে রাখে বায়ার্ন। যার তিনটিতে মেলে গোল।

ম্যাচের ৩৪ মিনিটের সময় প্রথম গোলটি করেন থমাস মুলার। ডি-বক্সের বাইরে থেকে শট নেন মুলার। বার্সা ডিফেন্ডার এরিক গার্সিয়ার গায়ে লেগে দিক পাল্টে বল চলে যায় জালে, কিছুই করার ছিলো টের স্টেগানের। এর ১৫ মিনিট আগে লেরয় সানের একটি শট, একইভাবে জালে জড়ানোর মুখে দারুণ ক্ষিপ্রতায় ঠেকিয়ে দিয়েছিল বার্সা গোলরক্ষক।

এক গোলের লিড নিয়ে বিরতিতে যাওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে আরও দুইবার গোলোৎসব করে নিগ্যালসম্যানের শিষ্যরা। দুইবারই গোলদাতা বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা স্ট্রাইকার রবার্ট লেওয়ানডস্কি। তিনি নিজের প্রথম ও ম্যাচের দ্বিতীয় গোল করেন ৫৬ মিনিটে। আর শেষ গোলটি আসে ৮৫ মিনিটের সময়।

ই গ্রুপের অন্য ম্যাচে গোলশূন্য ড্র করেছে বেনফিকা ও ডায়নামো কিয়েভ। যার ফলে প্রথম ম্যাচের পর শূন্য পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চার নম্বরে অবস্থান করছে রোনাল্ড কোম্যানের শিষ্যরা। তাদের পরের ম্যাচে ৩০ সেপ্টেম্বর, বেনফিকার বিপক্ষে।

কেকেআরে প্রথম দিনের অনুশীলনে যা বললেন সাকিব
অবশেষে ফাঁস হলো পিএসজিতে মেসির বেতন কত!
মনে হলো টিম ম্যানেজমেন্টই তামিমকে চায়নি: ফাহিম