1. dailyfulki04@gmail.com : dfulki :
  2. fulki04@yahoo.com : Daily Fulki : Daily Fulki
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৪০ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ খবর
সিংগাইরে গণডাকাতি মামলার ৭ আসামি গ্রেফতার, অস্ত্রসহ লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধার বিদেশিদের কাছে সরকারের উন্নয়ন ও বিএনপি’র অপশাসনের চিত্র তুলে ধরুন: প্রধানমন্ত্রী শাকিব-বুবলীর বিচ্ছেদও হয়েছে? মন্দির-মণ্ডপে আ. লীগ কর্মীদের পাহারা বসানোর নির্দেশ কাদেরের নভেম্বরে হচ্ছে না ডিসি সম্মেলন বিএনপি হাঁটুভাঙা নয়, আ. লীগেরই কোমর ভেঙেছে: ফখরুল গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন শুরু ১৭ অক্টোবর পিস্তল ঠেকিয়ে দুবাইফেরত ব্যক্তির সোনা ছিনতাইয়ে দুই পুলিশ হাতিয়ায় দুই জলদস্যু বাহিনীর গোলাগুলিতে নিহত ৩ ধামরাইয়ে মাদক বিক্রেতাদের বিরুদ্ধে একট্টা এলাকাবাসী, ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তারের দাবি

ধামরাই উপজেলা আ.লীগের নেতৃত্বে এমএ মালেক-কবির মোল্লা

  • আপডেট : বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৪৩ বার দেখা হয়েছে

ধামরাই প্রতিনিধি : দীর্ঘ ৯ বছর পর ধামরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন বুধবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে অনুষ্ঠিত হয়েছে। পৌর শহরের ধামরাই হার্ডিঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়াল বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সম্মেলনটির উদ্বোধন করেন ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও স্থানীয় সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা বেনজীর আহমদ।
এসময় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সভাপতি নির্বাচিত হন সাবেক সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ মালেক। অপরদিকে সাধারণ সম্পাদক পদে মোট চারজন প্রার্থী হওয়ায় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ আলোচনা করে পৌর মেয়র গোলাম কবির মোল্লাকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নাম ঘোষণা করেন। কমিটির অন্যান্য পদে নেতা-কর্মীদের নাম পরে জানানো হবে বলে জানিয়েছে জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন শেষে বিকেলে আগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়। এরপর বেনজির আহমেদ সভাপতিত্ব গ্রহণ করেন। পরে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সাবেক সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদ্য বিদায়ী সভাপতি এম এ মালেককে পুনরায় সভাপতি হিসেবে ঘোষণা করেন। এছাড়া সাধারণ সম্পাদক হিসেবে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র গোলাম কবির মোল্লা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদ্য বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সাকু, উপজেলা কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খালেদ মাসুদ খান লাল্টু ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজ উদ্দিন সিরাজের নাম আসে। এরপর তাদের মধ্যে সমঝোতার জন্য কিছুটা সময় দেওয়া হয়। তবে তারা সমঝোতায় ব্যর্থ হওয়ায় কেন্দ্রের শীর্ষ নেতারা আলোচনা করে গোলাম কবির মোল্লাকে সাধারণ সম্পাদক, সাখাওয়াত হোসেন সাকুকে সহ-সভাপতি ও খালেদ মাসুদ খান লাল্টুকে ১ নম্বর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা দেন। এছাড়া বাকি একজনকে জেলা কমিটিতে পদ দেওয়ার ঘোষণা দেন। এরপরেই সম্মেলনের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

এর আগে ২০১৩ সালে অনুষ্ঠিত উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে এম এ মালেক সভাপতি ও সাখাওয়াত হোসেন সাকু সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ওই সময় সংসদ সদস্য ছিলেন বেনজির আহমেদ। পরের বছর দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থীতা থেকে বাদ পড়েন তিনি। ওই সময় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন পান উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ মালেক। এরপর থেকেই দুই শীর্ষ নেতার মধ্যে বিরোধ শুরু হয়। এমনকি একজন আরেকজনের মুখ দেখাদেখিও বন্ধ করে দেন। পরে কয়েকবার কমিটি গঠনের চেষ্টা করা হলেও তা ভেস্তে যায়। অবশেষে কেন্দ্রের হস্তক্ষেপে নতুন কমিটি ঘোষণা হল।
সম্মেলনে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত হয়ে বক্তব্য রাখেন, প্রেসিডিয়াম সদস্য কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম এমপি, আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি, শিক্ষা ও মানবসম্পদ উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক শামসুন নাহার চাপা, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান এমপিসহ আরো অনেকে।

প্রসঙ্গত, গত ২৭ আগষ্ট আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হয়। এরপর থেকে উপজেলা আওয়ামী লীগের দুটি পক্ষ কাঙ্খিত পদ পেতে তৎপর হয়ে ওঠে। ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ঢাকা-২০ আসনের সংসদ সদস্য বেনজির আহমেদ ও একই আসনের সাবেক সংসদ সদস্য এম এ মালেক দুটি পক্ষের নেতৃত্বে রয়েছেন। বুধবার সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে এম এ মালেককে সভাপতি ও বেনজির আহমেদের অনুসারী গোলাম কবির মোল্লাকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়।

 

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও খবর

সত্যের সন্ধানে নির্ভীক কিছু তরুণ সংবাদকর্মী নিয়ে আমাদের পথচলা

তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন ডিএফপি’র মিডিয়া তালিকাভুক্ত ঢাকা জেলার একমাত্র স্থানীয় পত্রিকা