1. dailyfulki04@gmail.com : dfulki :
  2. fulki04@yahoo.com : Daily Fulki : Daily Fulki
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:৫৮ অপরাহ্ন

জাবিতে ভর্তি হতে এসে ১০ম স্থানে থাকা শিক্ষার্থী আটক

  • আপডেট : মঙ্গলবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৬০ বার দেখা হয়েছে

জাবি প্রতিনিধি :  জালিয়াতি করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথমবর্ষে ভর্তি চেষ্টার অভিযোগে মো. মিনহাজুল আবেদীন আল-আমিন নামে এক শিক্ষার্থীকে আটক করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। জালিয়াতি করে ‘বি’ ইউনিটের পরীক্ষায় তিনি ১০তম হন।

মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) বিকেল তিনটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদ ভবনের আইন বিভাগে ভর্তি হতে এলে তাকে আটক করা হয়।

আটক মিনহাজুল সমাজবিজ্ঞান ও আইন অনুষদভুক্ত ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রক্সির মাধ্যমে ১০ম স্থান লাভ করে। এর আগে তিনি মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। তবে মৌখিক পরীক্ষার ধাপ উতরে গেলেও ভর্তি হতে গিয়ে ধরা পড়েন তিনি।

আটক মিনহাজুল আবেদীনের বাড়ি ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া পৌরসভার গৌড়ীপুর এলাকায়। তার বাবার নাম মো. আবদুল লতিফ।মিনহাজুল ফুলবাড়িয়া পৌরসভার আল-হেরা একাডেমি থেকে এসএসসি এবং ময়মনসিংহ সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা শাখার প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মিনহাজুল প্রক্সির বিষয়টি স্বীকার করেছেন বলে জানান বিশ্ববিদ্যালয় নিরাপত্তা শাখার প্রধান সুদীপ্ত শাহীন ।

প্রক্সির বিষয়টি স্বীকার করে ওই ভর্তিচ্ছু বলেন, ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া ডিগ্রি কলেজ পড়ুয়া শাহিনুর নামে আমার এক মামা প্রক্সির মাধ্যমে পরীক্ষা দেওয়ার ব্যবস্থা করে দেন। এর বিনিময়ে ৩ লাখ টাকা দেওয়া হয়। তবে পরীক্ষা কে দিয়েছে সেটা জানি না। বারবার হাতের লেখা চর্চার পর ভাইভায় অংশ নিয়েছিলাম।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা সুদীপ্ত শাহিন বলেন, নিরাপত্তা শাখায় এনে মিনহাজুল আবেদীনকে জিজ্ঞাবাদ করা হয়। এ সময় সে প্রথমে জালিয়াতির বিষয়টি অস্বীকার করে। যদিও পরে জালিয়াতির বিষয়টি স্বীকার করে। তার মুঠোফোন জব্দ করে জালিয়াতি চক্রের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায়। পরে প্রচলিত আইন অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও খবর

সত্যের সন্ধানে নির্ভীক কিছু তরুণ সংবাদকর্মী নিয়ে আমাদের পথচলা

তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন ডিএফপি’র মিডিয়া তালিকাভুক্ত ঢাকা জেলার একমাত্র স্থানীয় পত্রিকা