1. dailyfulki04@gmail.com : dfulki :
  2. fulki04@yahoo.com : Daily Fulki : Daily Fulki
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০১:৩২ অপরাহ্ন
সর্বশেষ খবর
আশুলিয়ায় চিকিৎসকের বাসায় প্রেমিকার আত্মহত্যা সাভারে শেখ পরশের সুস্থতা কামনায় যুবলীগ নেতার দোয়া মাহফিল অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে সাগরে ট্রলারডুবি, সাঁতরে সৈকতে ফিরলেন ৩১ রোহিঙ্গা আশুলিয়ায় সড়ক দূর্ঘটনায় ওয়ালটন শ্রমিকের মৃত্যু বাংলাদেশে গ্রহণযোগ্য অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন জরুরি : সাভারে ব্রিটিশ হাইকমিশনার সাভারে চাঁদার দাবিতে হাত-পা বেঁধে মারধর পঞ্চগড়ে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে হত্যা, সাভারে গ্রেফতার ধামরাইয়ে পূজা মন্ডপে নিরাপত্তায় আনসারদের খোঁজ রাখেন না কেউ সিংগাইরে রাইস মিল মেকানিক্সকে তুলে নিলো যুবলীগ নেতা, মিলছে না হদিস সাভারে হলমার্ক গ্রুপের ভেতর নিরাপত্তা প্রহরী খুন, হত্যাকান্ডটি রহস্যময়

সাভারে তিতাসের কর্মকর্তা পরিচয়ে বকেয়া টাকা তুলতেন সেনেটারি মিস্ত্রি!

  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট, ২০২২
  • ১০৩ বার দেখা হয়েছে

তিতাস গ্যাসের কর্মকর্তা পরিচয়ে সাভার পৌরসভার বিভিন্ন বাসা থেকে বিলের বকেয়া টাকা আদায় করতেন সেনেটারি মিস্ত্রি মো. হাফিজুর রহমান। সন্দেহ হওয়ায় তাকে আটক করে স্থানীয়রা।

পরে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) বিকেলে পৌরসভার তালবাগ এলাকায় স্থানীয়দের কাছ থেকে সেনেটারি মিস্ত্রি মো. হাফিজুর রহমানকে আটক করে পুলিশ।

আটক মো. হাফিজুর ঝালকাঠির তাইসলে পাড়া গ্রামের বাসিন্দা। তার বাবার নাম খলিলুর রহমান।

উত্তরা এলাকায় সেনেটারির কাজ করতেন হাফিজুর।

পৌরসভার বাসিন্দা ও স্থানীয় বাড়ির মালিক রুপা রাহামনি। তিতাস গ্যাসের ৬ মাসের বিল বাকি ছিল তার। বৃহস্পতিবার দুপুরে হাফিজুর তার বাড়ি গিয়ে বকেয়া বিল চান। না দেওয়া হলে গ্যাসের সংযোগ কেটে দেওয়া হবে বলে জানান।

রুপা বলেন, দুপুরে হাফিজুর রহমান তার বাড়ি এসে তিতাসের কর্মকর্তা হিসেবে পরিচয় দেন। তার ৬ মাসের ১৩ হাজার টাকা বিল বাকি আছে বলে জানান। বকেয়া পরিশোধ না করলে লাইন কেটে দেবেন বলেন। আমি তার কাছে বিলের টাকা দেই। এ সময় অনেক মানুষের উপস্থিতি দেখে হাফিজুরকে সন্দেহ হয়। এরমধ্যে তিনি দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। তখন স্থানীয়রা তাকে ধরে ফেলেন। এরপর পুলিশে খবর দিলে থানা থেকে পুলিশ সদস্যরা এসে তাকে আটক করে নিয়ে যায়।

তিনি আরও বলেন, হাফিজুরের কাছে তিতাস গ্যাসের পরিচয় পত্র, গ্যাসের বিল জমা নেওয়ার মেমো, অফিসের বই ছিল। আমরা তো ধরেই নিয়েছিলাম তিনি তিতাসের লোক। পরে ধরা পড়লে জানতে পারি তিনি প্রতারক।

সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবুল কালাম আজাদ বলেন, তিতাস গ্যাস অফিসের কর্মকর্তা পরিচয়ে হাফিজুর প্রতারণা আশ্রয় নিয়েছেন। স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে আমরা তাকে আটক করে থানায় এনেছি। ভুক্তভোগীদের অভিযোগের ভিত্তিতে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিতাস গ্যাস টিঅ্যান্ডডি কোম্পানি লিমিটেডের সাভার জোনাল বিপণন অফিসের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী আবু সাদাৎ মো. সায়েম বলেন, আমি ঘটনাটি শুনেছি। যেহেতু স্থানীয়রা তাকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে। আমাদের পক্ষ থেকে যতটুকু ব্যবস্থা নেওয়া যায় বা আমাদের যদি তার বিরুদ্ধে থানায় সাক্ষী দিতে হয় দেব।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও খবর

সত্যের সন্ধানে নির্ভীক কিছু তরুণ সংবাদকর্মী নিয়ে আমাদের পথচলা

তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন ডিএফপি’র মিডিয়া তালিকাভুক্ত ঢাকা জেলার একমাত্র স্থানীয় পত্রিকা