1. dailyfulki04@gmail.com : dfulki :
  2. fulki04@yahoo.com : Daily Fulki : Daily Fulki
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৪৪ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ খবর
সিংগাইরে গণডাকাতি মামলার ৭ আসামি গ্রেফতার, অস্ত্রসহ লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধার বিদেশিদের কাছে সরকারের উন্নয়ন ও বিএনপি’র অপশাসনের চিত্র তুলে ধরুন: প্রধানমন্ত্রী শাকিব-বুবলীর বিচ্ছেদও হয়েছে? মন্দির-মণ্ডপে আ. লীগ কর্মীদের পাহারা বসানোর নির্দেশ কাদেরের নভেম্বরে হচ্ছে না ডিসি সম্মেলন বিএনপি হাঁটুভাঙা নয়, আ. লীগেরই কোমর ভেঙেছে: ফখরুল গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন শুরু ১৭ অক্টোবর পিস্তল ঠেকিয়ে দুবাইফেরত ব্যক্তির সোনা ছিনতাইয়ে দুই পুলিশ হাতিয়ায় দুই জলদস্যু বাহিনীর গোলাগুলিতে নিহত ৩ ধামরাইয়ে মাদক বিক্রেতাদের বিরুদ্ধে একট্টা এলাকাবাসী, ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তারের দাবি

মানিকগঞ্জে স্কুলছাত্রকে ডেকে নিয়ে কোপাল বখাটেরা

  • আপডেট : সোমবার, ৮ আগস্ট, ২০২২
  • ১০৩ বার দেখা হয়েছে

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি : মানিকগঞ্জের সাটুরিয়ায় সিয়াম হোসেন (১৬) নামে ১০ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ডেকে নিয়ে সবজি ক্ষেতে ফেলে মারধর ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়েছে স্থানীয় বখাটেরা।

এ ঘটনায় রবিবার (৭ আগস্ট) দুপুরে ওই ছাত্রের বাবা মজিবর রহমান বাদী হয়ে ঘটনার সাথে জড়িত আটজনের নাম উল্লেখ করে সাটুরিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

এর আগে শুক্রবার রাত ১০টার দিকে সাটুরিয়া উপজেলার ধানকোড়া ইউনিয়নের মহিষালোহা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্তরা হলেন, উপজেলার ধানকোড়া ইউনিয়নের মহিষালোহা গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে লিটন হোসেন(২০), কাজু মিয়া ছেলে ইমরান হোসেন (২১), খোরশেদ আলমের ছেলে খবু মিয়া(২২), চিনু মিয়ার ছেলে আমিনুর রহমান(২২), মৃত. হাফিস উদ্দিনের ছেলে আ: আজিজ(৫০), গজন মিয়া ছেলে মো: শাহা(৪৫), কাশিম আলী(২২), চানমিয়ার ছেলে সেলিম মিয়া(২০)।

ভুক্তভোগী সিয়াম হোসেন ঢাকার ধামরাই উপজেলার গাংগুটিয়া ইউনিয়নের কাওয়াখোলা গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে। সে সাটুরিয়ার ধানকোড়া ইউনিয়নের মহিষালোহা জব্বারিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর ছাত্র।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, স্কুলের বন্ধুদের আমন্ত্রণে সেদিন রাতে গান শুনতে ওই এলাকায় যায় ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থী। এ সময় তুচ্ছ ঘটনায় পূর্ব বিরোধের জেরে তাকে আড়ালে ডেকে নেয় অভিযুক্তরা। পরে তাকে কথায় কথায় একটি সবজি ক্ষেতের কাছে নিয়ে অতর্কিতভাবে কিল-ঘুষি, লাথি মারতে মারতে মারধর শুরু করে। একপর্যায়ে ২-৮ নং অভিযুক্ত লোহার রড, ইট ও কাঠের বাটাম দিয়ে তার ওপর এলোপাতাড়ি আঘাত করতে থাকলে ভুক্তভোগি রক্তাক্ত জখম হয়। এছাড়া ১নং অভিযুক্ত চাপাতি দিয়ে তার মাথা, কপালো পিঠ ও দুই হাতে কোপায়। এ সময় ভুক্তভোগীর ডাক চিৎকারে অন্যরা এসে তাকে উদ্ধার করলে অভিযুক্তরা তাকে ফেলে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে সাটুরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আশরাফুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর বাবা থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। বিষয়টি তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও খবর

সত্যের সন্ধানে নির্ভীক কিছু তরুণ সংবাদকর্মী নিয়ে আমাদের পথচলা

তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন ডিএফপি’র মিডিয়া তালিকাভুক্ত ঢাকা জেলার একমাত্র স্থানীয় পত্রিকা