Home গাজীপুর কালিয়াকৈরে ২৪ বছর বয়সে ৩ স্ত্রী রেখে চতুর্থ বিয়ের প্রস্তুতি, অতঃপর কারাগারে

কালিয়াকৈরে ২৪ বছর বয়সে ৩ স্ত্রী রেখে চতুর্থ বিয়ের প্রস্তুতি, অতঃপর কারাগারে

105

 

মাত্র ২৪ বছর বয়সে তিন বিয়ের পর চতুর্থবার বাল্যবিয়ের প্রস্তুতি নেওয়ায় তারেক মিয়া (২৪) নামে এক যুবককে দুই বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। পাশাপাশি কনের বয়স কম থাকায় তাকে দুই বছরের জন্য কোনাবাড়ী কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

তারেক মিয়া গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার ফুলবাড়িয়া উত্তরপাড়া এলাকার মোজাম্মেল হকের ছেলে ও রোজিনা আক্তার কাচিঘাটা এলাকার আব্দুল কাদেরের মেয়ে। আজ রবিবার ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও কালিয়াকৈর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) আদনান চৌধুরী গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান।

ভ্রাম্যমাণ আদালত ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, তারেক মিয়া ট্রাকচালক। এর আগে তিনি তিনটি বিয়ে করেছেন। তিন সন্তানের জনক। তার এক স্ত্রী বিদেশে ও আরেক স্ত্রী বাবার বাড়ি থাকেন। তিন স্ত্রী ও তিন সন্তান থাকার পরেও পাশের এলাকার রোজিনা আক্তারের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে তারেক মিয়া।

বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকায় একাধিকবার শালিশি বৈঠক হয়। এর পর শনিবার (৮ আগস্ট) বিকেলে রোজিনা আক্তার বিয়ের জন্য তারেক মিয়ার বাড়ি উঠেন। এসময় তারা পালিয়ে গিয়ে বাল্যবিয়ে করবেন বলে পরিবারকে হুমকি দেয়। একপর্যায়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা বিষয়টি পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসনকে জানায়।

খবর পেয়ে পুলিশ ও উপজেলা প্রশাসন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। পরে কালিয়াকৈর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আদনান চৌধুরীর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এসময় ভ্রাম্যমাণ আদালত বর তারেক মিয়াকে দুই বছরের কারাদণ্ড দেন। এছাড়া কনে রোজিনা আক্তারের বয়স কম থাকায় তাকে দুই বছরের জন্য কোনাবাড়ী কিশোরী উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

আদনান চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, বাল্যবিয়ের প্রস্তুতি নেওয়ায় বর তারেক মিয়াকে দুই বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। এ সময় রোজিনা আক্তার আত্মহত্যার হুমকি দেন। যার ফলে রোজিনা আক্তারের পরিবার তার দায়িত্ব নিতে চায়নি। পরে তাকে দুই বছরের জন্য কিশোরী উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।