‘রোম যখন পুড়ছিল, নিরো তখন বাঁশি বাজাচ্ছিল’- ঐতিহাসিক এক প্রবাদ। নানা সময় এই প্রবাদ ব্যবহার করা হয় মোক্ষম জায়গাগুলোতে। শুক্রবার রাতে ম্যানসিটির মাঠে গিয়ে ২-১ গোলে হেরে যখন রিয়াল মাদ্রিদ বিদায় নিচ্ছিল, তখন রিয়ালেরই অন্যতম খেলোয়াড় গ্যারেথ বেলের কর্মকাণ্ড নিয়ে এমন প্রবাদ বাক্যের সঙ্গে মেলাতে পারেন কেউ কেউ।

এক সময় রিয়ালের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় ছিলেন গ্যারেথ বেল। রিয়ালের বিখ্যাত ‘বিবিসি’র (বেনজেমা-বেল-ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো) অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ২০১৭-১৮ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালেও লিভারপুলের বিপক্ষে জোড়া গোল করেছিলেন তিনি।

কিন্তু সময়ের ব্যবধানে অনেক কিছুই বদলে যায়। এক সময়ের বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার গ্যারেথ বেল গত মৌসুমে জিনেদিন জিদানের কাছে ছিলেন পুরোপুরি অপাঙক্তেয়। সাইড বেঞ্চই ছিল তার নিয়মিত আসন। এমনকি প্রায় ম্যাচেই বদলি হিসেবে নামারও সুযোগ পেতেন না।

সেই গ্যারেথ বেল এবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডের ফিরতি লেগে ম্যানসিটির বিপক্ষে খেলতে চান না বলে আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন কোচ জিনেদিন জিদানকে। এ কারণে, জিদান ইত্তিহাদ স্টেডিয়ামগামী রিয়ালের স্কোয়াডেই নাম রাখেননি বেলের।

শুক্রবার রাতে ইত্তিহাদ স্টেডিয়ামে যখন রিয়াল মাদ্রিদ ম্যানসিটির কাছে হারছিল, তখন গ্যারেথ বেল কি করছিলেন? স্প্যানিশ মিডিয়া মার্কা সেটা প্রকাশ করেছে। তারা জানাচ্ছে, মাঠে যখন রিয়াল ম্যানসিটির কাছে ২-১ গোলে হারছিল, তখন মাদ্রিদেই মনের আনন্দে গলফ খেলে বেড়াচ্ছিলেন গ্যারেথ বেল।

দ্বিতীয় রাউন্ডের প্রথম পর্বেই যখন ম্যানসিটি গিয়ে রিয়ালদে তাদের মাঠেই ২-১ গোলে হারিয়ে এসেছিল, তখনই স্প্যানিশ জায়ান্টদের বিদায় অনেকটা নিশ্চিদ হয়ে যায়। ফলে, ম্যানসিটির মাঠে গিয়ে রিয়ালের ম্যাচটি ছিল অনেকটাই আনুষ্ঠানিকতা। তবুও, ম্যাচ শুরুর আগে ইত্তিহাদে যখন জিদান তার খেলোয়াড়দের সঙ্গে কথা বলছিলেন, তখন মাদ্রিদে গলফ খেলতে দেখা গেছে বেলকে।

লা সেক্সটা বেলের গলফ খেলার ছবি তোলেন। যে সময়টা