রাজবাড়ী সংবাদদাতা : প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি শেষে কর্মস্থলে ফিরতে শুরু করেছে সাধারণ মানুষ। ফলে দৌলতদিয়া প্রান্তের প্রায় ৫ কিলোমিটার সড়কে নদী পারের অপেক্ষায় সিরিয়ালে রয়েছে শত শত যানবাহন। বুধবার সকাল ১০টার দিকে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক ও রাজবাড়ী-কুষ্টিয়া আঞ্চলিক মহাসড়কে সিরিয়ালে থাকতে দেখা গেছে এসব যানবাহনগুলোকে।

সিরিয়ালে থাকা যানবাহনের মধ্যে রয়েছে এক থেকে দেড়শ যাত্রীবাহী বাস ও বাকি সব পণ্যবাহী ট্রাক। এছাড়া সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ব্যক্তিগত ছোট গাড়ি ও লোকাল গাড়ির যাত্রীদের চাপও বাড়তে শুরু করেছে।

Bus-1

এদিকে পদ্মার তীব্র স্রোতে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে ব্যাহত হচ্ছে ফেরি চলাচল। নদী পারাপারে সময় লাগছে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে দ্বিগুণ। ফলে ঈদ পরবর্তী সময়ে ঢাকামুখী যানবাহন ও যাত্রীদের চাপ এবং স্রোতে ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায় দৌলতদিয়া প্রান্তে তৈরি হচ্ছে যানবাহনের সিরিয়াল। এতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা সড়কে আটকে থেকে ভোগান্তি পোহাচ্ছে যাত্রী ও চালকরা।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাট শাখার সহব্যবস্থাপক মো. মাহাবুব হোসেন জানান, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে বর্তমানে ছোট বড় ১৭টি ফেরি চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। ঈদ পরবর্তী সময়ে ঢাকামুখী যাত্রী ও যানবাহনের বাড়তি চাপ রয়েছে। এছাড়া তীব্র স্রোতে ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায় দৌলতদিয়া প্রান্তে কিছুটা সিরিয়াল তৈরি হচ্ছে।