আশুলিয়া প্রতিনিধি : পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে সমাজের কর্মহীন ও অসহায় দুঃস্থ পরিবারের শিশুদের ‘ঈদ উপহার’ হিসেবে পরিধানের পোষাক বিতরণ করেছে কলেজ শিক্ষার্থীদের সংগঠন ‘ব্রাদারহুড’।

বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) বিকালে নির্দিষ্ট সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সাভারের জাবি সংলগ্ন আমবাগান এলাকা সহ সাভার ও ধামরাইয়ের বিভিন্ন এলাকায় মোট ১০০ দুঃস্থ শিশুদের মাঝে টি-শার্ট বিতরণ করে এই সংগঠনটির সদস্যরা।

ব্রাদারহুডের এই ঈদ পোষাক বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল ও কলেজের সমাজকল্যাণ বিষয়ের সহকারী অধ্যাপক শহিদুল ইসলাম, ব্রাদারহুড এতিম তহবিল এর ফাউন্ডার ফারদিন মিরাজ, সংগঠনের কো-ফাউন্ডার প্রতীক সামি আহমেদ, আরিয়ান তাহসিন তূর্ণ, রাকিবুল আলম রাকিব, সারাফ শাফিন, জুবায়ের হোসেন পাপ্পু, শান্ত সরকার, শিহাব শাহীন, লিসান আহমেদ প্রমুখ সহ অন্যারা।

এসময় প্রধান অতিথি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল ও কলেজের সমাজকল্যাণ বিষয়ের সহকারী অধ্যাপক মোঃ শহিদুল ইসলাম বলেন, ব্রাদারহুডের এই অল্প বয়সী তরুণেরা যেভাবে মানুষের সেবায় নিজেদের নিয়োজিত করছে তা তরুণ ছাত্র সমাজের জন্য অনুসরণীয় বলে আমি মনে করি। যে বয়সে তরুণেরা মাদক সেবনে আসক্ত হয়ে পড়ছে সে বয়সে এদের কার্যক্রম আমাকে দারুণভাবে উৎসাহিত করে।

এব্যাপারে ব্রাদারহুড এর ফাউন্ডার ফারমিদ মিরাজ জানায়, আমরা নবম শ্রেণী পড়াকালীন সময় কিছু মানবপ্রেমী বন্ধু একত্রিত হয়ে সমাজের অবহেলিত মানুষের জন্য ভালো কিছু করার চিন্তা থেকেই গড়ে তুলি ব্রাদারহুড। সেসময় থেকে টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে ক্ষুদ্র পরিসরে মানুষের সাহায্যে এগিয়ে আসি। আমাদের ভালো কাজে অনুপ্রাণীত হয়ে দিন দিন সংগঠনের সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধি পেতে থাকে। আমরা সামজসেবা কাজের পাশাপাশি ২০১৮ সালে জা.বি এর জহির রায়হান মিলনায়তনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান “রক ফেস্টের আয়োজন করি। সেখানে স্থানীয় ১৫ টি ব্যান্ডের উপস্থিতিতে আমার নিজস্ব ব্যান্ড “সিনরাজি” এর আত্মপ্রকাশ ঘটে। এরপর ২০১৯ সালে ব্রাদারহুড মাদক বিরোধী ফুটবল টুর্ণামেন্ট এর আয়োজন করে যেখানে সাভার এবং আশুলিয়ার ১৬টি স্থানীয় দল অংশ নেয়। এই টুর্ণামেন্টে ব্রাদারহুড ফুটবল দল ফাইনালে রানার্সআপ হয়। ২০১৯ সালে ব্রাদারহুড এতিম তহবিল গঠন করি, যার মাধ্যমে ৮ জন এতিম শিশুদের মাদ্রাসায় ভর্তি করে তাদের যাবতীয় খরচ বহন করছি।

ফারমিদ মিরাজ আরও বলে, এছাড়াও করোনা মহামারীর দুঃসময়ে আমরা সামাজিক দূরত্বে বৃত্ত তৈরি, জীবাণুনাশক স্প্রে ছিটানো, সচেতনতা বৃদ্ধিতে বাসে মাস্ক, লিফলেট এবং গ্লাভস বিতরণ করি।জাহাঙ্গীরনগর ভার্সিটি সংলগ্ন এলাকায় অসহায় মানুষের মাঝে ৪ বার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করি। এছাড়া “গাছ লাগাই পরিবেশ বাঁচাই” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে ঢাকা জেলা উত্তরের প্রায় ১০ টি এলাকায় বৃক্ষরোপন কর্মসূচি পালন করি। আমাদের কাজের ধারাবাহিকতায় আজ দুঃস্থ শিশুদের মাঝে ঈদ পোশাক বিতরণ করছি। এভাবেই ঐক্যবদ্ধভাবে সমাজ এবং দেশের মানুষের মঙ্গলে সর্বদা পাশে থাকতে চাই বলেও জানায় সে।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার আমবাগান এলাকায় ছাড়াও সাভার ও ধামরাইয়ের আরও কয়েকটি এলাকায় ব্রাদারহুডের পক্ষ থেকে অসহায় পরিবারের শিশুদের মাঝে ঈদ আনন্দ এনে দিতে পোষাক বিতরণ করা হয়। এর মধ্যে সাভার এলাকায় পোষাক বিতরণ করে সংগঠনের সাভার শাখার সদস্য রায়ান সাফা, আয়াতুল সিয়াম, ইফতেখার রাশেদসহ অন্যান্যরা, রেডিও কলোনি এলাকায় রাবিয়ান আহমেদ, আজনান আহমেদ, মাহফুজ, বাইশমাইল এলাকায় সাবাব চৌধুরী, জিরানী এলাকায় আবির আহমেদ, সজিব হাসান, অপু মুন্সি এবং ধামরাইয়ে আলভি রহমান ও সাকিব খান। এসময় সংগঠনটির মডারেটর নাবিলুর রহমান অয়ন এবং ইমতিয়াজ আহমেদ মিঠু উপস্থিত ছিলেন।