ধামরাই প্রতিনিধি : ধামরাইয়ে ডাকাতদের হামলায় কালিদাস বর্মন (৬২) নামে এক মাছ ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার ভোরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ের খাতরা কচমচ এলাকায় মাছ ব্যবসায়ীদের একটি পিকআপ ভ্যানে ডাকাতদের এ হামলার ঘটনা ঘটে।

নিহত কালিদাস বর্মন সাভার উপজলোর পাথালয়িা ইউনয়িনরে চাকলগ্রামের রোহিনী বর্মনের ছেলে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় তাসিকুল ইসলাম (৫৫) ও পান্ডব রাজবংশী (৫০) আহত হয়েছেন। গুরুতর অবস্থায় তাসিকুল ইসলামকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে পুলিশ এ ঘটনায় কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, ধামরাইয়ের ইসলামপুর-নয়ারহাট আড়তের মাছ ব্যবসায়ী চাকল গ্রামের কালিদাস বর্মন, কুরগাও এলাকার তাসিকুল ইসলাম, ঘুঘুদিয়া এলাকার পান্ডব রাজবংশীসহ ৪-৫ জন ব্যবসায়ী প্রতিদিন ভোরে মানিকগঞ্জের আরিচা ঘাটে মাছ কিনতে যান। প্রতিদিনের ন্যায় মঙ্গলবার ভোরে তারা একটি পিকআপ ভ্যানযোগে রওনা দেন।

পিকআপ ভ্যানটি ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ের খাতরা কচমচ এলাকায় পৌছলে ১০-১২ জনের একদল ডাকাত মাইক্রোবাস দিয়ে পিকআপ ভ্যানটি গতিরোধ করে সকল মাছ ব্যবসায়ীদের হমালা চালায়। এসময় ডাকাতদের উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে কালিদাস বর্মন নিহত হন। আহত হন তাসিকুল ইসলাম, পান্ডব রাজবংশী। এসময় দ্রুত খবর পেয়ে টহল ডিউতে থাকা ধামরাই থানা পুলিশ নিহত ও আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। গুরুতর তাসিকুল ইসলামকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছেন।

ধামরাই থানার ওসি দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, ডাকাতদের হামলায় নিহতের ঘটনায় জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।