আশুলিয়া প্রতিনিধি : আশুলিয়ায় অবৈধ গ্যাস সংযোগ লিকেজ থেকে বিস্ফোরণে অগ্নিদগ্ধ হয়ে ১০ বছরের ছেলেসহ ৩ জনের মৃত্যুর ঘটনায় ২ জন ইউপি মেম্বারসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। নিহতের স্বজন বাদী হয়ে এই মামলা দায়ের করেন।

বৃহস্পতিবার (০৯ জুলাই) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক সামিউল ইসলাম। ৮ জুলাই রাতে এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়।

এর আগে গত ৫ জুলাই ভোরে আশুলিয়ার কাঠগড়া দুর্গাপুরের চালাবাজার এলাকায় সামছুদ্দিনের বাড়িতে এ অগ্নিকান্ডে ঘটনা ঘটে। অগ্নিকান্ডে ৩ জন মারা যায়। এ ঘটনায় নিহতদের স্বজন আজিজুল ইসলাম মামলা দায়ের করেন।

আসামিরা হলো, বাড়ির মালিক সামছুদ্দিন, কেয়ারটেকার জহিরুল, আশুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সহ-সভাপতি কুসুম মোল্লা, তার ভাই হুমায়ন মোল্লা, স্থানীয় ইউপি সদস্য জাকির ও সপু এবং আলমগীর। তারা সবাই আশুলিয়ার দূর্গাপুর এলাকার বাসিন্দা। এরআগেও তাদের বিরুদ্ধে অবৈধ গ্যাস সংযোগের অভিযোগ রয়েছে।

জানা গেছে, ৫ জুলাই ভোরে ওই এলাকার সামছুদ্দিনের বাড়ির একটি কক্ষে রান্না করার সময় অবৈধ গ্যাস সংযোগের লিকেজ থেকে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দগ্ধ হয়ে ওই বাড়ির ভাড়াটিয়া আবুল কাশেম ও তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম এবং তাদের ১০ বছরের ছেলে আর আমীন মারা যান। পরে তাদের গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহে লাশ দাফন করা হয়। পরে বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেন আসামিরা। ৮ জুলাই বিষয়টি জানাজানি হলে ঘটনাস্থলে ছুটে যান পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। পরে রাতেই ৭ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন নিহত আবুল কাশেমের মামা আজিজুল ইসলাম।

আশুলিয়া থানার  পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাবেদ মাসুদ জানান, গ্যাস সংযোগ বিস্ফোরণে ৩ জন নিহতের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।