বান্দরবান সংবাদদাতা : বান্দরবানে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস) দুই পক্ষের গোলাগুলিতে ৬ জন নিহত হয়েছেন।নিহতরা সকলেই জেএসএস’র এমএন লারমা গ্রুপ বা সংস্কারপন্থী অংশের সদস্য। এদের মধ্যে দলের সংস্কারপন্থী অংশের জেলা সভাপতি রতন তঞ্চঙ্গ্যাও রয়েছেন। এসময় আরো অন্তত ৩ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

আজ ৭ জুলাই, মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে সদর উপজেলার রাজ‌বিলার বাঘমারা এলাকায় গোলাগুলির এ ঘটনা ঘটে। এসময় জেএসএস’র মূল দলের সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের গুলিতে যারা নিহত হন, এরা হলেন- জেএসএস সংস্কারপন্থী অংশের বান্দরবান জেলা সভাপ‌তি রতন তঞ্চঙ্গ্যা, সহ-সভাপ‌তি প্র‌জিত চাকমা, সদস্য ডে‌ভিড বাবু, মিলন চাকমা,  জয় ত্রিপুরা ও দি‌পেন ত্রিপুরা।

এছাড়া গু‌লি‌বিদ্ধ দু’জনের নামও জানা গেছে। এরা হলেন- বিদ্যুৎ ত্রিপুরা ও নিরু চাকমা।

স্থানীয় সূত্র জানায়, সকালে বাঘমারা এলাকায় জেএসএস’র বিবদমান দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলি শুরু হয়। এসময় ঘটনাস্থলেই সংস্কারপন্থী অংশের পাঁচজন নিহত হন। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তিন জনকে হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানে আরো একজন মারা যান।

বান্দরবার সদরের ৬নং নোয়াপতং ইউনিয়নের সদস্য মিচি মার্মা এ বিষয়ে সকালে বলেন, ‘আমরা ঘটনাস্থলে ৫ জনের লাশ দেখেছি। গুলিবিদ্ধ ৩ জনকে বান্দরবান সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’