মাসুম বাদশাহ, সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) থেকে : মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার মানিকনগর-সিরাজপুর সড়কের মাধবপুর এলাকায় যোগী খালের ওপর নির্মিত ব্রীজ বন্ধ করে দেয়াল নির্মাণ করেন সুজন মেটাল ইন্ডাষ্ট্রিজের কর্ণধার দেওয়ান তমিজ উদ্দিন (তজু কোম্পানী)। এ নিয়ে দৈনিক ফুলকি‘র অনলাইন নিউজ পোর্টালসহ একাধিক গণমাধ্যমে স্বচিত্র সংবাদ প্রকাশিত হলে প্রশাসনের নজরে আসে। গত ১৫ জুন উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মেহের নিগার সুলতানা ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান। পরিমাপ শেষে লাল নিশান লাগিয়ে পানি প্রবাহ ঠিক রাখতে ব্রীজের অংশের খালের মধ্যে নির্মিত দেয়াল ৭ কর্ম দিবসের মধ্যে অপসারণের নির্দেশ দেন।

সূত্রমতে, গত ২৪ জুন প্রশাসনের বেঁধে দেয়া সময় শেষ হয়েছে। দখলদার তজু কোম্পানী প্রশাসনের নির্দেশকে থোরাই কেয়ার করে নির্মিত দেয়াল অপসারণ থেকে বিরত রয়েছেন। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, খালটির পানি প্রবাহ বন্ধ হয়ে গেলে নোয়াদ্দা, ওয়াইজনগর, মানিকনগর, শ্যামনগর, সায়েস্তা ও মাধবপুর চকের হাজারো বিঘা ফসলি জমিসহ বিশাল এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হবে। কৃষক বঞ্চিত হবে ফসল উৎপাদন থেকে। যার প্রভাব পড়বে কৃষক পরিবারগুলোতে। এলাকাবাসি খালের মধ্যে নির্মিত দেয়ালটি দ্রুত অপসারণে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত দেওয়ান তমিজ উদ্দিন (তজু কোম্পানী) বলেন, আমি মৌখিক কথায় দেয়াল ভাঙ্গঁবো না। আমাকে নোটিশ দিতে হবে। সাত কর্ম দিবস প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কোথায় পেয়েছেন এটা। মুখে মুখে কার, কিসের কর্মদিবস। সরকার আমার দেয়াল ভেঙ্গে দিক।

চান্দহর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ শওকত হোসেন বাদল বলেন, সরকারি বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে এটাই স্বাভাবিক ব্যাপার।

এ ব্যাপারে সিংগাইর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মেহের নিগার সুলতানা বলেন, বেঁধে দেয়া সময়ে খালের মধ্যে নির্মিত দেয়াল অপসারণ না করলে যথাযথ আইনী প্রক্রিয়ার মাধ্যমে উচ্ছেদ করা হবে।