স্টাফ রিপোর্টার : সাভার উপজেলা পরিষদ কনফারেন্স রুমে শুক্রবার বিকেলে উপজেলা করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ প্রতিরোধ কমিটির সঙ্গে সাভার নাগরিক কমিটির প্রতিনিধি দলের এক করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত মতবিনিময় সভা শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন সাভার উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ প্রতিরোধ কমিটির আহ্বায়ক পারভেজুর রহমান। কমিটির অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য ও প:প: কর্মকর্তা ও সাভার উপজেলা করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব ডা: মো: সায়েমুল হুদা, সাভার উপজেলা স্যানিটারী ইন্সপেক্টর মো: মোজাম্মেল হোসেন, পুলিশ প্রতিনিধি এস.আই মো: রনি।

সাভার নাগরিক কমিটি প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন সংগঠনের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কৃষিবিদ ড. মো: রফিকুল ইসলাম ঠান্ডু মোল্লা। তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন সাভার নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক মো: সালাহ্উদ্দিন খান নঈম, সাভার নাগরিক কমিটির সহ-সভাপতি মুহাম্মদ শামসুল হক, আলহাজ¦ রহিম উদ্দিন আহমেদ, আলহাজ¦ শওকত আলী মাহমুদ, সাভার নাগরিক কমিটির উপদেষ্টা ও সাভার প্রেসক্লাবের সভাপতি নাজমুস সাকিব, স্বাস্থ্য উপদেষ্টা, ডা: এম. এ রাজ্জাক, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাগিরুজ্জামান শাকিক, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: বাবুল মোড়ল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক স্মরণ সাহা, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড: শাহিনুর রহমান খান, সহ-সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক সাজেদা বেগম সাজু প্রমুখ।

উক্ত করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত মতবিনিময় সভায় সাভার নাগরিক কমিটির বক্তব্য সাভার যদিও একটি উপজেলা তথাপি সমগ্র সাভারের বাস্তব অবস্থা বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা/বিভাগের চেয়েও গুরুত্বপূর্ণ জনপদ। সাভারে ৫০/৬০ লক্ষ দেশী-বিদেশী নাগরিক বসবাস করেন। নগরায়ণ-শিল্পায়নবেষ্টিত সাভারে বাংলাদেশ লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রসহ অন্যান্য রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান বিদ্যমান থাকায় ঢাকা মহানগরের মতই সাভার একটি গুরুত্বপূর্ণ জনপদ। তাই শুধু একটি উপজেলার মানদন্ডে বিচার না করে বাস্তব অবস্থার ভিত্তিতে বিচার করে করোনা ভাইরাসসহ সকল বিষয়ে বিবেচনা করে সাভারের বসবাস কারীদের সেবা নিশ্চিত করন সম্পর্কে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। পাশাপাশি করোনা টেস্টের সংখ্যা বৃদ্ধি করে প্রকৃত রোগীর সংখ্যা চিহ্নিতকরণ, প্রত্যন্ত অঞ্চল, শিল্প কারখানা, হাট বাজার, অলি গলিতে স্বাস্থ্য বিধি মানতে সচেষ্ট করার উপরর গুরুত্ব আরোপ করা হয়।

সেই ক্ষেত্রে প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, সাংবাদিক হাট বাজার কমিটি, মার্কেট কমিটি, মসজিদ- মন্দির, গির্জা কমিটি, কমিউনিটি পুলিশিং কমিটি, এনজিওসহ অন্যান্য সকল প্রতিষ্ঠানকে এক যোগে কাজের ক্ষেত্র তৈরী করার উপর গুরুত্ব আরোপ করে কতিপয় প্রস্তবনা তুলে ধরা হয়।

ইখজও ল্যাবের টেস্ট ধীর গতিকে আরো গতিশীল করা, অত্র এলাকার মানুষের ভোগান্তি নিরসনে আরো নতুন ল্যাব তৈরী করার বিষয়ে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে আহবান করা হয়।

এছাড়া করোনা টেস্টের গতিকে ত্বরান্বিত করতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ^বিদ্যালয় এর বিদ্যমান চঈজ ল্যাব ব্যবহার করার উদ্যোগ গ্রহণ করা যায় কিনা সেই পদক্ষেপ গ্রহণের আহবান করা হয়।

ইখজও এর সাথে শেখ ফজিলাতুন্নেছা বিশেষায়িত হাসপাতাল ও এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা টেস্টের তথ্য সংযোজন / যুক্ত করার জন্য আহবান জানানো হয়।

সাভার নাগরিক কমিটির নেতৃবৃন্দের বক্তব্য শুনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার পারভেজুর রহমান ও সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য ও প:প: কর্মকর্তা ডাঃ সায়েমুল হুদা উল্লিখিত দাবীগুলোর সাথে সহমত পোষণ করে বিষয়গুলো উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের গোচরীভূত করবেন এবং করোনা যুদ্ধে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।