আশুলিয়া প্রতিনিধি : আশুলিয়া থানার আরো ৫ পুলিশ সদস্যের দেহে করোনার পজিটিভ ধরা পড়েছে। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী আক্রান্তরা নিজ বাসায় থেকে চিকিৎসা সেবা নিবেন বলে জানা যায়। এ নিয়ে আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রিজাউল হক দিপু এবং তাদের ২ জন সহকারীসহ ৩০ জন করোনায় আক্রান্ত হলেন।। ০৬ জুন, শনিবার আশুলিয়া থানা সূত্র এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এর আগে আশুলিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ রিজাউল হক দীপু কোভিট-১৯ আক্রান্ত হলে তাকে রাজধানীর ইমপালস হসপিটালে চিকিৎসার জন্যে ভর্তি করা হয়েছে।

৩য় দফায় আক্রান্তরা হলো ইন্সপেক্টর অপারেশন জিয়াউল হক, সহকারি উপ পরিদর্শক মতিন, সহকারি উপ পরিদর্শক কল্পনা(মুন্সি), ড্রাইভার উজ্জল ও ড্রাইভার রিফাত। তবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত কোন পুলিশ সদস্যই পুরোপুরি সুস্থ হয়ে কর্মক্ষেত্রে ফিরতে পারেননি বলেও জানা যায়।

 

আশুলিয়া থানা সূত্রে জানা যায়, গত ৩১ মে (রোববার) গাজীপুরের শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল কেপিজে বিশেষায়িত হাসপাতালে (কেপিজে) নমুনা দেয়া হয়েছিল। বুধবার (০৩ জুন) রিপোর্ট আসলে দেখা যায়, তারমধ্যে একজন এএসআইসহ ৯ পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত হন।

জানা জায়, গত ৩০ মে (শনিবার) আশুলিয়া থানা থেকে ৫৯ জনের নমুনা দেয়া হয়। তারমধ্যে ১১ জনের করোনা পজেটিভ হয়। যার মধ্যে ১ জন এস আই, ৪ জন কনস্টেবল ও ৪ জন নারী কনস্টেবল। অন্য ২ জন থানার ম্যাচের ২ বাবুর্চি ( তারা থানার চুক্তিভিত্তিক নিয়োগকৃত জনবল)।

গত ৩০ মে (শনিবার) সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৫ নারীর কনস্টেবলের নমুনা দেয়া হয়। তারমধ্যে গত ৩১ মে (রবিবার রাতে) ৪ জনের পজেটিভ হওয়ার রিপোর্ট পাওয়া যায়। বাকী ৫৪ জনের গাজীপুরের শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল কেপিজে বিশেষায়িত হাসপাতালে (কেপিজে) নমুনা দেয়া হয়েছিল। তারমধ্যে গত ০১ জুন(সোমবার) সকালে ৭ জনের করোনা পজেটিভ হয়। তাদের সবাইকে ঢাকা বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এদিকে গত ২৯ মে আশুলিয়া থানার ওসি রিজাউল হক দিপুসহ ৫ পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত হন। তারা ঢাকা বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত৩১ মে,রোববার ৪ নারী পুলিশ সদস্যসহ ৯ জন করেনায় আক্রান্ত হন। এরআগে২৯ মে আশুলিয়া থানার ওসি রিজাউল হক দিপুসহ ৫ পুলিশ সদস্য করোনায় আক্রান্ত হন। তারা ঢাকা বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।