করোনা সহসাই বিদায় হওয়ার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না। তাই এই মহামারির সঙ্গে মানিয়ে নেয়া ছাড়া উপায় নেই। কতদিন আর সব কিছু বন্ধ করে রাখা সম্ভব?

করোনার মধ্যেই খেলাধুলা চালু হচ্ছে আস্তে আস্তে। ফুটবল ইতিমধ্যে মাঠে গড়িয়েছে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটও ফেরার অপেক্ষায়। তবে সমস্যা বেঁধেছে বৈশ্বিক আসর নিয়ে। দ্বিপক্ষীয় সিরিজ না হয় দর্শক ছাড়া চালিয়ে দেয়া যাবে, বিশ্বকাপ কি সম্ভব?

পাকিস্তানের কিংবদন্তি পেসার ওয়াসিম আকরাম মনে করেন, এটা কোনোভাবেই সম্ভব হবে না। দর্শকবিহীন বিশ্বকাপ চান না তিনি। বরং আইসিসিকে সময় নিতে বললেন সাবেক এই গতিতারকা।

অস্ট্রেলিয়ায় আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর বসার কথা। এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে টুর্নামেন্ট স্থগিতের ঘোষণা আসেনি। তবে কানাঘুষা শোনা যাচ্ছে, হয়তো এ বছর আর বিশ্বকাপ হবে না।

দর্শক ছাড়া জোর করে বিশ্বকাপ আয়োজনের কোনো যৌক্তিকতা দেখেন না ওয়াসিম আকরামও। ‘দি নিউজ’-এর সঙ্গে সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, ‘ব্যক্তিগতভাবে আমি মনে করি, এটা সঠিক আইডিয়া নয়। আমি বলতে চাইছি, কিভাবে দর্শক ছাড়া ক্রিকেট বিশ্বকাপ আয়োজন সম্ভব?’

তিনি যোগ করেন, ‘বিশ্বকাপ মানেই বিশাল দর্শক। নিজেদের দলকে সমর্থন দিতে বিশ্বের নানা জায়গা থেকে সমর্থকরা আসেন। এটার একটা পরিবেশ আছে। ক্লোজ ডোরে এটা আপনি আয়োজন করতে পারেন না।’

আগামী ১০ জুন আইসিসি এই বিশ্বকাপের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে। ওয়াসিমের পরামর্শ হলো, মহামারি কমে গিয়ে পরিবেশ স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরলে তবেই বিশ্বকাপের কথা ভাবা উচিত।

‘সুলতান অব সুইং’খ্যাত পাকিস্তানের সাবেক এই পেসারের ভাষায়, ‘আমি মনে করি, তাদের (আইসিসি) উচিত উপযুক্ত একটা সময়ের জন্য অপেক্ষা করা। যখন মহামারি বিদায় হবে এবং বিধি নিষেধ ওঠে যাবে, তখন আপনি একটি সত্যিকারের বিশ্বকাপ দেখতে পাবেন।’