রাজশাহী সংবাদদাতা : রাজশাহীর বাঘায় তাবলিগ জামাতের চিল্লা ফেরৎ এক বৃদ্ধের (৬৫) মৃত্যু হয়েছে। এলাকাবাসীর সন্দেহ তিনি করোনা সংক্রমণে মারা গেছেন। এমন খবরে মরদেহের কাছে যাচ্ছে না কেউ।

বুধবার সকাল ৬টার দিকে এলাকার একটি মাদরাসায় মারা যান ওই ব্যক্তি। তিনি উপজেলার উত্তর মিলিকবাঘা গ্রামের বাসিন্দা।

স্বজনদের ভাষ্য, তিনি সম্প্রতি তাবলিগ জামাত দলের সঙ্গে চিল্লায় কুষ্টিয়া এলাকায় গিয়েছিলেন। চিল্লা শেষে গত ৫ এপ্রিল তিনি নিজ এলাকায় ফেরেন। পরে বাড়িতে উঠতে না দিয়ে তাকে বাঘা উৎসব পার্কের পাশে এক মাদরাসায় রাখা হয়। অসুস্থ হয়ে বুধবার সেখানেই মারা যান ওই বৃদ্ধ।

এলাকাবাসী বলছেন, তার মৃত্যু করোনায় হয়ে থাকতে পারে। এতে আতঙ্কে কেউ মরদেহের কাছে যাচ্ছেন না। প্রায় ৫ ঘণ্টার বেশি সময় ধরে মরদেহ মাদরাসার এক কক্ষে পড়ে আছে।

ওই বৃদ্ধের ছেলে জানান, তার বাবার মধ্যে কোনো করোনা উপসর্গ নেই। বর্তমান পরিস্থিতির কারণে আলাদাভাবে রাখা হয়েছিল। কিন্তু তারপরও করোনা সন্দেহে বাবার কাছে কেউ যাচ্ছেন না। মরদেহ দাফনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা জানান, খবর পেয়ে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য দায়িত্বরত চিকিৎসককে বলা হয়েছে। তারাই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।