আশুলিয়ায় বাড়ি ভাড়া পরিশোধ করতে না পারায় স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণ

0
443

আশুলিয়া প্রতিনিধি : আশুলিয়া বাড়ি ভাড়া পরিশোধ করতে না পারায় স্বামীকে আটক রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে এ ন্যাক্কারজনক ঘটনার মূল হোতা বাড়ি মালিককে আটক করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ।

আরো পড়ুন : সাভারে গণবিশ্ববিদ্যালয়ে ট্রাস্টি ডা: জাফরউল্লাহ চৌধুরী সাড়ে ৫ ঘন্টা অবরুদ্ধ


আজ বুধবার দুপুরে আশুলিয়া পশ্চিম জামগড়া এলাকার ফকির বাড়ি থেকে অভিযুক্ত বাড়ির মালিক কালামকে (৪০) আটক করে পুলিশ। এর আগে মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে একই বাড়িতে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে।
নির্যাতিত নারী শ্রমিকের অভিযোগ থেকে জানা, তিনি পশ্চিম জামগড়া এলাকায় মো. কালামের বাড়ির একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে পোশাক কারাখানায় কাজ করেন। মঙ্গলবার রাতে পরিবহন চালক স্বামী ও তিনি নিজ কক্ষেই ছিলেন। রাত ১২টারদিকে বাড়ির মালিক কালাম ও তার পাঁচ সঙ্গী নিয়ে ডিসেম্বরের মাসের বকেয়া ২ হাজার টাকা ভাড়ার জন্য তার কক্ষে আসেন।

আরো পড়ুন : আশুলিয়ায় তিন দিনে ২ শিশু ও ১ পোশাক শ্রমিক ধর্ষণের অভিযোগ

পরে কারখানায় তাদের বেতন পরিশোধ না করায় বাড়ির মালিককে ভাড়া দিতে দেরি হবে বলে জানান তিনি। কিন্তু মালিক কালামের সহযোগী দুইজন তার স্বামীকে পাশের কক্ষে আটকে রাখে। পরে জোরপূর্বক তার স্বর্ণের চেইন, কানের দুল, হাতের চুরিসহ নাকের ফুল খুলে নেয় তারা। এরপর তিনজন তার হাত-পা চেপে ধরে এবং বাড়ির মালিক কালাম জোরপূর্বক ধর্ষণ করে তাকে। বাকি তিনজন পরবর্তীতে ভোর ৪টা পর্যন্ত তাকে ধর্ষণ করে চলে যায়। পরে বুধবার সকালে তিনি আশুলিয়া থানায় এসে অভিযোগ করলে পুলিশ অভিযুক্তদের ধরতে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে মূল ধর্ষণকারী কালামকে আটক করতে সক্ষম হয়।

আরো পড়ুন :


আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক সেলিম রেজা জানান, ভুক্তভোগী ওই নারী শ্রমিকের অভিযোগ পাওয়ার পরপরই অভিযুক্ত বাড়ির মালিক কালামকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় অন্য অভিযুক্তদের আটকের চেষ্টা চলছে বলে তিনি নিশ্চিত করেন।