কুষ্টিয়া সংবাদদাতা : কুষ্টিয়ায় বন্ধুর জন্মদিন পালন করতে গিয়ে অ্যালকোহল পান করে তিন বন্ধুর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন আরও তিন জন। তাদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। একটি হোমিওপ্যাথির দোকান থেকে তারা এই অ্যালকোহল কিনেছিলেন।

বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) রাতে এই ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেন কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (আরএমও) ডাক্তার তাপস কুমার সরকার। ভিকটিম সবার বাড়ি কুষ্টিয়া শহরে।

আরো পড়ুন : আইসিজের সিদ্ধান্তের দিকে তাকিয়ে রোহিঙ্গা শরণার্থীরা

মৃতরা হলেন- শহরের আড়ুয়াপাড়া এলাকার মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে সাজিদ (১৯), কুঠিপাড়া এলাকার সাগরের ছেলে ফাহিম (১৮) এবং থানাপাড়া এলাকার আরমান আলীর ছেলে পাভেল (২০)। এ ঘটনায় সুরুজ এবং শান্ত নামে দুই জনকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়াও আতিকুল নামে একজন কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

তাপস কুমার সরকার জানান, ‘বৃহস্পতিবার বিকালে ছয় তরুণকে তাদের স্বজনরা হাসপাতালে নিয়ে আসেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান সাজিদ। পরে ফাহিম নামে আরও একজনের মৃত্যু হয়। রাতে মারা যান পাভেল। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে অ্যালকোহল পানে তাদের মৃত্যু হয়েছে।’

তিনি আরও জানান, ‘এ ঘটনায় অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে আতিকুল (২২), সুরুজ (২২) ও শান্ত (২৩) । তাদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।’

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাক্তার নুরুন নাহার বেগম বলেন, ‘বৃহস্পতিবার বিকালে ছয় তরুণকে হাসপাতালে নিয়ে আসলে এর মধ্যে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে।’ 

আরো পড়ুন : টেকনাফে ৮ লাখ ইয়াবাসহ গ্রেফতার ৪, অস্ত্র উদ্ধার

কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মোস্তফা জানান, ‘রাফি হোমিও হল থেকে বন্ধুরা মিলে অ্যালকোহল কিনেছিল। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একজনকে আটক করা হয়েছে।’