ভিসা শেষে ভারতে অবস্থান করলে মুসলিমদের হিন্দুদের চেয়ে দুইশো গুণ বেশি জরিমানা গুনতে হবে। ভারতের এমন পদক্ষেপকে ধর্মীয় বৈষম্য হিসেবে উল্লেখ করেছে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কার্যালয়।

নতুন নিয়ম অনুযায়ী, বাংলাদেশে সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম কোনো ব্যক্তি ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পরেও যদি ভারতে অবস্থান করেন তবে তাকে একজন হিন্দু ব্যক্তির চেয়ে কমপক্ষে দুইশো গুণ বেশি জরিমানা দিতে হবে।

আরো পড়ুন : রোহিঙ্গা গণহত্যার মামলায় মিয়ানমারের বিরুদ্ধে সহায়তা দেবে কানাডা, নেদারল্যান্ডস

বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কার্যালয় এই ঘটনাকে ধর্মের ভিত্তিতে বৈষম্য বলে বর্ণনা করেছে। কর্মকর্তারা বলছেন, আগামী দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে তারা এই বিষয়টি তুলে ধরবেন।

দু’সপ্তাহ আগে বাংলাদেশি ক্রিকেটার সাইফ হাসান ভারতে নির্ধারিত সময়ের বেশি অবস্থান করায় তাকে জরিমানা গুনতে হয়। তিনি এ বিষয়ে কলকাতায় ডেপুটি হাই কমিশনকে অবহিত করেন।

আরো পড়ুন : ৩৮ আরোহী নিয়ে চিলির সামরিক বিমান নিখোঁজ

এফআরআরও-এর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত নতুন নীতিমালায় বলা হয়েছে যে, পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের সংখ্যালঘু হিন্দ্র সম্প্রদায়ের জন্য দুই বছরের বেশি সময় অবস্থান করলে ৫শ রুপি, ৯১ দিন থেকে দুই বছর অবস্থান করলে ২শ রুপি এবং ৯০ দিন অবস্থান করলে ১শ রুপি জরিমানা করা হবে।