হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এক যাত্রীকে আটক করে তার পেট থেকে দুই  হাজার ৯০৫ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ। সোমবার (২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৫টার  সময় বিমানবন্দর থানায় তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের হয়েছে। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপস অ্যান্ড মিডিয়া) আলমগীর হোসেন।

বিমানবন্দর সূত্রে জানা গেছে, রবিবার (১ ডিসেম্বর) রাত ১০ টার সময়  মো. শাহিন (৩৫)  বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালের বহির্গামী রাস্তার পাশের গাড়ি পার্কিং এলাকায় সন্দেহজনক ঘোরাফেরা করছিল। এ সময় ওই এলাকায় নিরাপত্তা দায়িত্ব পালনকারী আর্মড পুলিশের সদস্যরা তাকে চ্যালেঞ্জ করে। পরবর্তীতে তাকে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের হেফাজতে নিয়ে তল্লাশি ও জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে সে তার পেটে ইয়াবা থাকার কথা স্বীকার করে।

পরবর্তীতে তার পাকস্থলী থেকে এই ইয়াবা বের করে আনতে প্রায় ১৫ ঘণ্টা সময় লেগে যায়। জিজ্ঞাসাবাদে সে জানায়, কক্সবাজারের বালুখালীর জনৈক সেলিম তাকে এই ইয়াবা হস্তান্তর করে। টঙ্গির চেরাগ আলীতে বসবাসকারী কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা জনৈক হাবিব তাকে এই ইয়াবা আনার জন্য নিয়োগ করে এবং বিনিময়ে তার কাছে পাওনা ৪০ হাজার টাকা মাফ করে দেবে বলে জানায়।

আলমগীর হোসেন জানান, আটক  ইয়াবার বাজার মূল্য প্রায় চৌদ্দ লাখ টাকা।  জিজ্ঞাসাবাদে শাহীন আরও জানিয়েছে, নভোএয়ার যোগে কক্সবাজার থেকে এই ইয়াবা নিয়ে সে ঢাকায় আসে। আটক শাহীন বরগুনা জেলার সদর থানার পাঠাকাচা হেলিবানিয়া গ্রামের আলমগীর হোসেনের ছেলে ।