ঘরের মাঠে ভারতকে টেক্কা দিতে পারে বাংলাদেশই : লক্ষ্মণ

0
134

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হওয়ার পর বাজিমাত করে চলেছে কেবল ভারতই। ঘরের মাঠে দুটি সিরিজ খেলেই ভারতের পয়েন্ট পূর্ণ ২৪০। অন্যদিকে বাকি আটটি দেশের সম্মিলিত পয়েন্ট মাত্র ২৩২। দুই বছর পর টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ট্রফি কারা হাতে তুলে নিতে যাচ্ছে, সেটা যেন এখনই পরিস্কার হয়ে যাচ্ছে।

শুধু পূর্ণ ২৪০ পয়েন্টই নয়, নিজেদের ঝুলিতে আরও ১২০ পয়েন্ট জমা করতে যাচ্ছে ভারতীয়রা। কারণ, নভেম্বরেই ঘরের মাঠে আরও একটি সিরিজ খেলতে যাচ্ছে তারা। প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ। ঘরের মাঠে যেখানে তারা দক্ষিণ আফ্রিকাকে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজে নাকানি-চুবানি খাইয়েছে, সেখানে ৯ নম্বরে থাকা বাংলাদেশ কি করতে পারবে?

তার ওপর, নিজেদের টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে এই প্রথম মাঠে নামবে বাংলাদেশ। নিজেদের প্রথম সিরিজেই মুখোমুখি ভারতের। বিরাট কোহলিদের বিপক্ষে ইন্দোর এবং কলকাতায় দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। এই দুই ম্যাচে ভারতের সামনে উড়ে যাবে বাংলাদেশ- এমনটাই অনেকের ধারণা।

কিন্তু এসব ধারণাবাদীদের থেকে নিজেকে কিছুটা দুরে রাখলেন ভারতের ভেরি ভেরি স্পেশাল, ভিভিএস লক্ষ্মণ। তিনি বিশ্বাস করেন, ভারতের মাটিতে এসে বিরাট কোহলিদের টেক্কা দেয়ার ক্ষমতা রাখে বাংলাদেশ। ঘরের মাঠে হলেও সাকিব আল হাসানদের বিপক্ষে সিরিজ জেতাটা হবে ভারতের জন্য কঠিন। এ কারণে বাংলাদেশকে হালকাভাবে না নেয়ার জন্য কোহলিদের প্রতি কড়া হুশিয়ারিও উচ্চারণ করে ফেলেছেন লক্ষ্মণ।

নভেম্বরেই ভারতের মাটিতে স্বাগতিকদের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ এবং দু’টি টেস্ট খেলতে ভারত যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার পর থেকে এই প্রথম বাংলাদেশ ক্রিকেট দল কোনো পূর্ণাঙ্গ সফরে যাচ্ছে ভারতে।

দক্ষিণ আফ্রিকাকে বিরাট কোহলিরা সহজে হারাতে পারলেও বাংলাদেশ ভালোই টক্কর দেবে বলে মনে করেন ভেরি ভেরি স্পেশাল। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয়, ভারত-বাংলাদেশ সিরিজে লড়াই হবে। বাংলাদেশ দল দক্ষিণ আফ্রিকার থেকে অভিজ্ঞ। সম্প্রতি বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা দারুণ ফর্মে রয়েছে। সুতরাং ওদের হালকাভাবে নেওয়া ঠিক হবে না। টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশ লড়াই করবে।’

স্বাগতিক ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে শুরু হচ্ছে ৩ নভেম্বর। দিল্লিতে এই ম্যাচ দিয়ে সফর শুরু করবে টাইগাররা। পরের দু’টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ হবে যথাক্রমে রাজকোট এবং নাগপুরে। এরপর ১৪ নভেম্বর থেকে প্রথম টেস্ট ইন্দোরে। দ্বিতীয় তথা সিরিজের শেষ টেস্ট ম্যাচটি শুরু হবে ২২ নভেম্বর থেকে কলকাতায়।