কবরীর সিনেমায় কলকাতার নায়িকা, শুরু হচ্ছে শুটিং

0
120

ঢাকাই সিনেমার মিষ্টি মেয়ে কবরী। ১৯৬৪ সালে সুভাষ দত্তের পরিচালনায় ‘সুতরাং’ ছবির নায়িকা হিসেবে অভিনয় জীবনের শুরু। এরপর অভিনয় করেছেন হীরামন, ময়নামতি, চোরাবালি, পারুলের সংসার, বিনিময়, সুজন সখী, সারেং বউ, দিন যায় কথা থাকে, আগন্তুকসহ অসংখ্য কালজয়ী চলচ্চিত্রে।

২০০৫ সালে তিনি চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবেও হাজির হন। নির্মাণ করেন ‘আয়না’ নামের সিনেমা। ওই ছবির একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে তিনি অভিনয়ও করেছিলেন। এরপর রাজনীতিতে ঢুকে পড়ায় ছবি পরিচালনা তো দূরে থাক, অভিনয়েই তিনি অনিয়মিত হয়ে পড়েন।

তবে লেখালেখি করতে পছন্দ করা কবরী ২০০৮-০৯ সালের দিকে একটি ছবির চিত্রনাট্য লিখেছিলেন। সময়ের অভাবে ছবিটি নিয়ে মাঠে নামা হচ্ছিলো না। ২০১৫ সালে ঘোষণা দেন সেই ছবিটি নির্মাণের। জানান, ছবির নাম হবে ‘এই তুমি সেই তুমি’।

দুই প্রজন্মের দুটি জুটির রোমান্স, মানসিকতা ফুটে উঠবে এই ছবির গল্পে। কিন্তু প্রায় দেড় কোটি টাকা বাজেটের এই ছবিটি অর্থের অভাবে তৈরি করতে পারছিলেন না তিনি। বাধ্য হয়ে দুই দুইবার সরকারি অনুদানের জন্যও আবেদন করেন। অবশেষে চলতি বছরে সাড়া মিললো। ৫০ লাখ টাকা অনুদান পেয়েছেন তিনি ‘এই তুমি সেই তুমি’ ছবির জন্য।

এবার এই অভিনেত্রী মাঠে নামছেন। তিনি জানান, আসছে ডিসেম্বরেই শুটিং শুরু করবেন তিনি নতুন ছবির। সেজন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

ছবির পাত্র পাত্রী কারা? এই প্রসঙ্গে কবরী জাগো নিউজকে বলেন, ‘এখন পর্যন্ত সোহেল রানা অভিনয় করবেন এটা বলা যায়। আমিও থাকবো। আরও একটি জুটি আছে ছবিতে। তাদের খুঁজছি। ঢাকার একজন নায়ক থাকবেন। তার সঙ্গে কলকাতার কোনো নায়িকাকে নেয়ার ইচ্ছে আছে। বেশ কয়েকজনের সঙ্গে আলাপ হয়েছে। চূড়ান্ত হলে শিগগিরই সেই জুটির নাম ঘোষণা করবো।’

ঢাকায় নায়ক হিসেবে ‘এই তুমি সেই তুমি’ ছবিতে আরিফিন শুভ’র নাম শোনা গিয়েছিলো ২০১৬ সালের দিকে। তবে কবরী বলেন, ‘কিছুই এখনো চূড়ান্ত নয়। অনেকদিন পর অনেক অপেক্ষা শেষে ছবিটি নির্মাণ করতে যাচ্ছি। একটু দেখেশুনে ও বোঝে কাজটি শুরু করতে চাই।’

কবরী আরও জানান, দুটি জুটির চার শিল্পী ছাড়াও ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে অনুদান পাওয়া ‘এই তুমি সেই তুমি’ ছবিতে বাংলাদেশের স্বনামধন্য কলাকুশলীরা কাজ করবেন। একটি মৌলিক গল্পে চমৎকার বিনোদনের সিনেমা নির্মাণের চেষ্টা করছেন তিনি।