স্টাফ রিপোর্টার : আশুলিয়ায় হানিফ পরিবহণ কাউন্টার কর্মী রবিন (২২) কে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় আজ শনিবার সন্ধ্যায় ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। তারা সবাই আন্ত:জেলা বাস ডাকাত দলের সদস্য। রবিন আশুলিয়া থানাধীন ডিগ্রিরটেক (মাদারটেক) নয়ারহাট এলাকার আব্দুর রহমানের ছেলে। সে উত্তরবঙ্গে যাতায়াতকারি হানিফ পরিবহণের বাইপাইল আজিজ ফিলিং স্টেশন সংলগ্ন কাউন্টারের কর্মী ছিল। আটককৃতদের নিয়ে পুলিশ অভিযানে রয়েছে। তবে তদন্তের স্বার্থে পুলিশ তাদের নাম প্রকাশ করেনি।

আরও পড়ুন >> ধামরাইয়ে ডিবি পরিচয়ে ডাকাতি, ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্র নিহত

আশুলিয়া থানার ওসি রিজাউল হক দীপু বলেন জানান, আটক ডাকাতরা জানায়, বুধবার দিবাগত রাত দেড়টারদিকে রবিন কাউন্টার বন্ধ করে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়া হওয়ার পর বাইপাইল বাসস্ট্যান্ডে আলআমিন পরিবহনের একটি বাসযোগে আন্ত:জেলা ডাকাতদলের ৭/৮জন সদস্য নবীনগর যাবে বলে কয়েকজন যাত্রী তুলে। রবিন বাইপাইল হতে পল্লী বিদ্যুৎ স্টেশনে যাবার জন্য ওই বাসে উঠে। পরবর্তীতে রবিনকে তারা মারধর করে মাত্র ২শ’ টাকা ও মোবাইল ফোন হাতিয়ে নেয়। এ সময় ডাকাতদল তাকে পিঠমোড়া দিয়ে বেধে পেছনের সিটের নীচে ফেলে রাখে। পরবর্তীতে রবিন ডাক-চিৎকার দিলে ডাকাতদল তাকে এলোপাথারি কুপিয়ে ডেইরি ফার্ম এলাকায় ফেলে যায়।

আরও পড়ুন >> সাভারে বাসকাউন্টার কর্মীকে হত্যা, থানায় মামলা

এ ব্যাপারে নিহতের মা শিরিন আক্তার বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশের একাধিক টিম তদন্তে নামে এবং যে বাসে রবিনকে হত্যা করা হয় সেই আলআমিন পরিবহনের একটি বাসসহ ওই ৩ জনকে আটক করে। বাসটির মালিক বলিয়ারপুর এলাকার বাসিন্দা। আটককৃতরা সকলেই চিহ্নিত অপরাধী। এ ঘটনায় পুলিশ আজ রবিবার সংবাদ মাধ্যমকে বিস্তারিত জানাবেন বলে জানান ওসি।