ফুলকি ডেস্ক : পদত্যাগ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি নৃপেন্দ্র মিশ্র। সেপ্টেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে তিনি অবসরগ্রহণ করছেন। শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী মোদী বিষয়টি ট্যুইট করেছেন এবং এই সংক্রান্ত তথ্য দিয়েছেন। যদিও দায়িত্ব থেকে থেকে মুক্তি পাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ আগেই করেছিলেন নৃপেন্দ্র মিশ্র৷ তিনি পদত্যাগ করতে চাওয়ায় প্রধানমন্ত্রী নৃপেন্দ্র মিশ্রকে দু’সপ্তাহ কাজ চালিয়ে যাওয়ার অনুরোধ করেছিলেন। একই সঙ্গে পিকে সিনহাকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে ওএসডি নিয়োগ করা হচ্ছে। নৃপেন্দ্র মিশ্র তার সিদ্ধান্তে বলেছিলেন যে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে কাজ করে খুব ভাল লেগেছিল। প্রধানমন্ত্রী আমাকে একটি সুযোগ দিয়েছেন, এর জন্য আমি কৃতজ্ঞ। আমার এখন এগিয়ে যাওয়ার সময় এসেছে। আমি সর্বদা জনস্বার্থের বিষয়ে সক্রিয় থাকব। নৃপেন্দ্র মিশ্র আরও বলেছিলেন যে, বিগত ৫ বছরে প্রতিটি মুহূর্ত আমার জন্য খুব বিশেষ হয়ে উঠেছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও নৃপেন্দ্র মিশ্রের অবসর নিয়ে টুইট করেছেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছেন যে, নৃপেন্দ্র মিশ্রজি অবসর নেওয়ার অনুরোধ গ্রহণ করেছেন। তাঁর ইচ্ছা অনুযায়ী সেপ্টেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে মুক্তি দেওয়া হবে। তার জন্য তাঁকে অনেক শুভেচ্ছা। অপর এক টুইট বার্তায় প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেছেন যে, আমি যখন ২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী হয়েছি, তখন দিল্লি আমার জন্য নতুন ছিল এবং নৃপেন্দ্র মিশ্রও নতুন ছিলেন। তবে তিনি দিল্লির শাসন ব্যবস্থার সঙ্গে বেশ পরিচিত ছিলেন। সেই পরিস্থিতিতে তিনি অধ্যক্ষ সচিব হিসাবে তাঁর মূল্যবান সেবা দিয়েছিলেন। সে সময় তিনি আমাকে ব্যক্তিগতভাবেই নয়, দেশকে ৫ বছর এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রেও সহায়তা করেছিলেন। জনগণের আস্থা অর্জনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছেন, সহযোগী হিসাবে তিনি গত পাঁচ বছর সব ব্য্যাপারে তাঁকে সমর্থন করেছিলেন। ২০১২ সালের নির্বাচনের ফলাফলের পরে, নৃপেন্দ্র মিশ্রজি প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি পদ থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য অনুরোধ করেছিলেন। তারপরে বিকল্প আবেদন না হওয়া পর্যন্ত আমি তাঁকে কাজ চালিয়ে যাওয়ার অনুরোধ করেছি।