জাবিতে কাটা গাছের গুড়িতে কাফনের কাপড় মুড়িয়ে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

0
230

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) ‘অপরিকল্পিতভাবে’ গাছ কাটায় বিক্ষোভ করেছে শিক্ষার্থীরা। গতকাল শুক্রবার সকালে নির্মাণ কোম্পানির শ্রমিকরা বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হলের দক্ষিণ ও পূর্বপাশের শতাধিক গাছ কাটার পর শিক্ষার্থীরা বাধা দেয়। গাছ কাটার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে শিক্ষার্থীদের মাঝে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া দেখা যায়। বিকাল সাড়ে ৩টায় কাটা গাছের গুড়িতে কাফনের কাপড় মুড়িয়ে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হলের সামনে থেকে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে। মিছিলটি ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে উপাচার্যের বাসভবনে গিয়ে শেষ হয়।

আরো পড়ুন : ভোগান্তির এক নতুন নাম প্রি-পেইড মিটার ?

বিক্ষোভের আগে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর হলের সামনে একটি প্রতিবাদী পথ নাটক প্রদর্শন করেন জাহাঙ্গীরনগর থিয়েটার। জাহাঙ্গীরনগর সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি আশিকুর রহমান বলেন, আমরা জানতে পেরেছি এই উন্নয়ন কাজের টাকা ভাগাভাগির ব্যাপারে যখন সাংবাদিকরা জেনে যায় তখন তাদেরকে ভয়ভীতি দেখানোর চেষ্টা করা হয়েছে। শোকের মাসে ছাত্রলীগ এ দেশের গরীবের টাকা লুটপাট করতে উঠে পড়ে লেগেছে। আমরা উপাচার্যকে স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিতে চাই এই উন্নয়ন কাজের সঙ্গে জড়িত সংশ্লিষ্ট সকলের মতামত না নিয়ে এই অপরিকল্পিত উন্নয়ন কাজ ভবিষ্যতের জন্য উন্নয়ন বয়ে আনাবে না।শুক্রবার বিকালে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন জাবি শাখা এই উন্নয়ন পরিকল্পনাকে ‘অপরিকল্পিত ও অস্বচ্ছ’ আখ্যা দিয়ে এই উন্নয়ন কাজ বন্ধ করার আহ্বান জানায়।

আরো পড়ুন : জাবি শিক্ষার্থীদের ঈদের পর দিনই ক্যাম্পাসে ফিরতে হবে

গত ২২ জুলাই মেয়েদের হল নির্মাণের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের টারজান পয়েন্টে কাজ শুরু করে সংশ্লিষ্ট নির্মাণ কোম্পানি। পরবর্তীতে শিক্ষার্থীদের বাধায় তা পণ্ড হয়। এরপর উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনা করে তাদের দাবিকে বিবেচনা করে দেখবেন বলে আশ্বাস প্রদান করেন।