সারাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২২, আহত শতাধিক

0
66

ফুলকি ডেস্ক : দেশের বিভিন্ন সড়কে আজ বৃহস্পতিবার দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত মোট ২২ জনের নিহতের খবর পাওয়া গেছে। এছাড়াও এসব দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও শতাধিক।

 ফেনীর লেমুয়া এলাকায় কক্সবাজারগামী একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে ৮ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১১ জন। বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে সদর উপজেলার লেমুয়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের পরিচয় জানা যায়নি। লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। আহতদের ফেনী সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে কিশোরগঞ্জ-ভৈরব মহাসড়কের কটিয়াদি উপজেলার আচমিতা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের সম্মুখে ট্রাক-সিএনজির সংঘর্ষে সিএিনজির চালকসহ ৪ জন নিহত এবং চারজন আহত হন। আহতদের জেলা সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভৈরবগামী যাত্রীবাহী সিএনজিটিকে একটি মালবাহী ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ধাক্কা দিলে সিএনজিটি দুর্ঘটনা কবলিত হয়। এতে সিএনজির চালক করিমগঞ্জ উপজেলার নিয়ামতপুর গ্রামের জাহিদ (৩০) এবং যাত্রী ইটনা উপজেলার নয়ানগর গ্রামের তোফাজ্জল (৩০) ও ওমর ফারুক (১৯) মারা যান। কটিয়াদি হাইওয়ে ফাঁড়ির ইন-চার্জ নাসিরউদ্দিন মজুমদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ট্রাকটিকে আটক করা হয়েছে। তবে ট্রাকের চালক পলাতক।

ফরিদপুর-বরিশাল মহাসড়কের ভাঙ্গা বিশ্বরোড সংলগ্ন এলাকায় বৃহস্পতিবার সকালে দুইবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৩ জন নিহত ও কমপক্ষে ৫০ জন আহত হয়েছে। প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপি উদ্ধার অভিযান চালিয়ে নিহত ও আহতদের উদ্ধার করা হয়। এ সময় সড়কের দুই প্রান্তে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে যায়। উদ্ধার অভিযানে উপজেলা প্রশাসন, ভাঙ্গা হাই-ওয়ে পুলিশ, থানা পুলিশ, ফায়ার সার্ভিসের কর্মী সহ স্থানীয় জনতা অংশ নেয়। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুকতাদিরুল আহমেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। দুর্ঘটনায় নিহতরা হলো নগরকান্দা থানার রামনগর গ্রামের ধলা ফকিরের ছেলে বাসের চালক রওশন ফকির (৪৫) ও রাজবাড়ী জেলার পাচুরিয়া গ্রামের লক্ষন কুন্ডর স্ত্রী বাসের মহিলা যাত্রী মিরা কুন্ড (৬০) ও অজ্ঞাত বৃদ্ধ (৭০)।

 সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে চারটি বাসের চতুর্মুখী সংঘর্ষে ২ যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ৩০ জন বাসযাত্রী। বৃহস্পতিবার বিকেল তিনটার দিকে বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ মহাসড়কের উপজেলার কোনাবাড়ি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। হতাহতদের নাম পরিচয় পাওয়া যায়নি। বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জহুরুল ইসলাম ও সিরাজগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্সের ওয়্যার হাউজ ইন্সপেক্টর মো. হামিম জানান, ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গগামী হানিফ পরিবহণের একটি যাত্রীবাহী বাস কামারখন্দের কোনাবাড়ি এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা ফাইভ স্টার পরিবহণের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ বাধে। এ সময় পেছন থেকে ডিপজল ও এনা পরিবহণের দুটি বাস হানিফ পরিবহণের সাথে ধাক্কা খায়। এতে চতুর্মুখী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সামনে থাকা হানিফ ও ফাইভ স্টার পরিবহণের বাস দুটি দুমড়ে মুচরে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুজনের মরদেহ উদ্ধার করে। এছাড়াও প্রতিটি বাস থেকেই প্রায় ৩০ জনের মত আহত যাত্রীকে উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। এদের মধ্যে বেশ কজনের অবস্থা আশংকাজনক।

টাঙ্গাইলের সখীপুরে পিকআপভ্যানের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী ইসতিয়াক আহমদ (১৭) নামের এক কলেজছাত্র নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে সখীপুর-গোড়াই সড়কের বোয়ালী উত্তরপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

গোপালগঞ্জে মোটরসাইকেল ও মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে তুহিন মোল্লা (৪৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। এতে তার স্ত্রী সাখি বেগম (৪০) মারাত্মকভাবে আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুপুর ২ টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের কাশিয়ানী উপজেলার গোপালপুর নামক স্থানে দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত তুহিন মোল্লা গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার ঘোষেরচর উত্তরপাড়া গ্রামের মৃত আছর আলী মোল্লার ছেলে।

ময়মনসিংহের ফুলপুরে বাস-অটোরিকশা সংঘর্ষে শিশুসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও তিনজন। বৃহস্পতিবার দুপুর দুইটার পর উপজেলার ইমাদপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, শেরপুরের বাসিন্দা সিরাজ উদ্দিন (৪৫) ও শিশু জায়েদ (৬)।

জানা যায়, ঢাকাগামী সোনার বাংলা পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা অটোরিকশার সংঘর্ষ হলে ঘটনাস্থলেই শিশু জায়েদ মারা যায়। পরে আহতদের ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সিরাজ উদ্দিন নামে আরও একজনের মৃত্যু হয়।

এছাড়াও ভোলায় মাহিন্দ্রচাপায় পারভেজ (৬) নামে এক শিশুর নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ওই এলাকার ব্যারিস্টার কাঁচারি বাজারে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত পারভেজ ভোলার সদর উপজেলার পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের ব্যারিস্টার কাঁচারি এলাকার মো. শাহাবুদ্দিনের ছেলে।