মিন্নিকে গ্রেপ্তার করা হয়নি, সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার

0
129

বরগুনা : মঙ্গলবার সকালে বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রধান সাক্ষী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার বাবার বাড়ি থেকে পুলিশ লাইনে আনা হয়েছে। পুলিশ লাইন আনার সাথে সাথে মিন্নিকে গ্রেফতারের ব্যাপক গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়লে বেলা ১টায় বরগুনার পুলিশ সুপার মো. মারুফ হোসেন এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, মামলার তদন্তের জন্যই আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তাকে গ্রেফতার বা আটক করা হয়নি।

পুলিশ সূত্র জানায়, মিন্নির বাবার বাড়িতে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা ১০ সদস্যের পুলিশ টিম এখনো অবস্থান করছে। সকাল পৌনে ১০টার সময় মিন্নিকে আনার জন্য নারী পুলিশের একটি দল মিন্নির বাবার বাড়িতে যান এবং তার বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরসহ মিন্নিকে পুলিশ লাইনে নিয়ে আসেন ।

গত কয়েকদিন ধরে বরগুনায় রিফাত শরীফ হত্যা মামলার ১ নং সাক্ষী রিফাতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে গ্রেফতারের ব্যাপক গুঞ্জন চলছিল। কলেজের ভিতরে রিফাতকে মারধরের সময় মিন্নি স্বাভাবিকভাবে হেঁটে যাচ্ছে এরকম একটি ভিডিও ফুটেজ ভাইরাল হলে একটি মহল মিন্নিকে গ্রেফতারের দাবিতে স্বোচ্ছার হয়ে উঠে । ১৩ জুলাই রাত ৮টায় বরগুনা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে নিহত রিফাত শরীফের বাবা দুলাল শরীফ মিন্নিকে গ্রেফতারের দাবি জানান এবং ১৪ জুলাই সকাল ১১টায় বরগুনা প্রেসক্লাবের সামনে মিন্নিকে গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেন। এদিকে মিন্নিকে গ্রেপ্তার করা বা না করা নিয়ে বরগুনার বিভিন্ন মহলে এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিশ্র প্রতিক্রিয়া চলছে।

পুলিশ সূত্র জানায়, রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় ১৩ জনকে জীবিত অবস্থায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে । মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড গত ২ জুলাই পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে মারা যায় । গ্রেফতারকৃত আসামিদের মধ্যে এ পর্যন্ত ১০ জন ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে। বাকি ৩ জন এখনো রিমান্ডে রয়েছে। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত রয়েছে ।