২০৩০ সালের মধ্যে ২ কোটিরও বেশি চাকরি দখল করে নেবে রোবট। তবে শুধু কারখানার চাকরিই তাদের দখলে যাবে। গবেষণা প্রতিষ্ঠান অক্সফোর্ড ইকোনোমিক্সের সাম্প্রতিক এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

গবেষণা প্রতিষ্ঠানটির বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়, এসব জায়গা থেকে যারা চাকরি হারাবে তারা সেবা খাতেও যেতে পারবে না। কারণ, সেবা খাতও এখন স্বয়ংক্রিয় হয়ে যাচ্ছে। ফলে চাকরির সুযোগ কমছে সেখানেও।

তবে সবকিছু স্বয়ংক্রিয় হয়ে যাওয়ার কারণে অনেক চাকরি রোবটের দখলে চলে যাওয়ায় হতাশ হওয়ার কিছু নাই। অক্সফোর্ড ইকোনোমিক্স বলছে, স্বয়ংক্রিয় হওয়ার কারণে চাকরির সুযোগ এবং অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বাড়বে।

গবেষণা প্রতিষ্ঠানটি বলছে, যেসব অঞ্চলে মানুষের দক্ষতা কম, অর্থনীতি দুর্বল এবং উচ্চ বেকারত্বের হার বিদ্যমান ওইসব অঞ্চলে স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থার কারণে মানুষের চাকরি হারানোর সম্ভাবনা বেশি। উৎপাদন খাত থেকে যারা চাকরি হারাচ্ছে বা হারাবে তারা পরিবহন, অবকাঠামো, ব্যবস্থাপনা, অফিস ও প্রশাসন ইত্যাদি কাজে যুক্ত হবে।
রোবট শুধু উৎপাদন খাতেই বেশি জায়গা দখল করবে। কেননা, এখানে মস্তিষ্কের কোনও কাজ নেই। তবে যেখানে বুদ্ধি দিয়ে কাজ করতে হয় সেসব ক্ষেত্রে কখনোই রোবট জায়গা দখল করতে পারবে না বলে উল্লেখ করেছেন প্রযুক্তি বিশ্লেষকরা।