গণস্বাস্থ্যের সেই নবজাতক দত্তক নিলেন কৃষিবিদ বজলুর

0
71

স্টাফ রিপোর্টার : সাভারের গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের প্রাচীরের বাহির থেকে উদ্ধার হওয়া নবজাতককে কৃষিবিদ মো. বজলুর রহমান দত্তক নিয়েছেন। শুক্রবার দুপুরে নবজাতকটিকে কৃষিবিদ বজলুর রহমান ও তার স্ত্রী সাফিয়া ইসলামের হাতে তুলে দেয়া হয়। হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. আবু তাহের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

কৃষিবিদ বজলুর রহমান সাভার উপজেলার স্বনির্ভর ধামসোনা ইউনিয়ন পরিষদের ডেন্ডাবর এলাকার বাসিন্দা।

নবজাতকটিকে দত্তক দেয়ার সময় হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ ও শিশু বিভাগের রেজিস্ট্রার ডা. মাহবুব জোবায়ের সোহাগ, ইন্টার্ন চিকিৎসক ডা. লিডিয়া রুত বিশ্বাস ও ডা. রিজভীয়া জাহান সীমা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. আবু তাহের জাগো নিউজকে জানান, নবজাতকটি উদ্ধার হওয়ার পরে লিখিতভাবে আশুলিয়া থানায় জানানো হয়েছিল। পরে আশুলিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রিজাউল হক এ ব্যাপারে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ করতে বলেন। নবজাতক উদ্ধার হওয়ার বিষয়টি জানাজানি হলে অনেকেই দত্তক নেয়ার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছিল।

এর প্রেক্ষিতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এ মাসের ৩ তারিখে কৃষিবিদ বজলুর রহমানের বাসা পরিদর্শন করে। পরে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে কৃষিবিদ বজলুর রহমানের নিকট নবজাতকটি দিতে একমত পোষণ করে। এ দম্পতি উচ্চ শিক্ষিত। বজলুর রহমানের স্ত্রী সাফিয়া ইসলাম পেশায় একজন ইংরেজি শিক্ষক। উনাদের নিজস্ব বাসা রয়েছে। নবজাতকটির উজ্জ্বল ভবিষ্যতের কথা বিবেচনা করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এ দম্পতিকে নির্বাচন করেছে।

উল্লেখ্য, গত ১১ মে সকালে আসিফ হোসেন নামে এক ইট-বালু ব্যবসায়ী নবজাতকটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে রেখে যান। নবজাতকটি এতদিন হাসপাতালের গাইনি বিভাগের তত্ত্বাবধানে ছিল। এ নবজাতককে গাইনি বিভাগের একাধিক সদ্য মা হওয়া নারীর বুকের দুধ পান করানো হয়েছে।