নাসিমকে পদত্যাগের পরামর্শ আলালের

0
59

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য পদ থেকে মোহাম্মদ নাসিমকে পদত্যাগ করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করার পরামর্শ দিয়েছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।

জাতীয় প্রেস ক্লাবে শুক্রবার (১৭ মে) নাগরিক অধিকার আন্দোলন ফোরাম আয়োজিত সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহর স্মরণসভায় এ পরামর্শ দেন তিনি।

আলাল বলেন, ‘নাসিম সাহেবের মতো লোক বললেন, পয়সা দিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কেনা যায়, এমনকি বিচার- আদালত কেনা যায়। আজকে হাইকোর্ট পারে না একটি রুল দিয়ে আদালত অবমাননা করতে। অথচ বেগম খালেদা জিয়াকে শাস্তি দিয়ে খুব বীরত্ব দেখাতে পারে।’

তিনি বলেন, ‘নাসিম সাহেব যখন স্বীকার করেছেন, তখন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য হিসেবে দল থেকে পদত্যাগ করে দেখান একটা দৃষ্টান্ত। যে, এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না বলে আমি পদত্যাগ করলাম।’

আওয়ামী লীগের আগের মর্যাদা নেই উল্লেখ করে আলাল বলেন, ‘হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী, মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী এবং শেখ মুজিবুর রহমানের যে আওয়ামী লীগ, সেই আওয়ামী লীগের সঙ্গে এ আওয়ামী লীগ যায় না। সে আওয়ামী লীগের একটা সম্মান ছিল, গৌরব ছিল, মর্যাদা বোধ ছিল।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে যুবদলের সাবেক এ সভাপতি বলেন, ‘ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলীয় জোটের সঙ্গে বিএনপির দূরত্ব তৈরি হয়েছে বিষয়টি ঠিক না। বরং এটা থেকে আপনাদের প্রশংসা করা উচিত বিএনপির সঙ্গে ২০ দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অভ্যন্তরীণ গণতন্ত্র চর্চা আছে। শেখ হাসিনার মতো মুখের ওপর ধমক দিয়ে সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেয়া হয় না এখানে।’

মাহফুজ উল্লাহকে স্মরণ করে সাবেক এ সংসদ সদস্য বলেন, ‘অনেক সময় নদীপথে আবহাওয়া খারাপ হয়। তখন নৌযানগুলো যেন বিভ্রান্ত না হয় তার জন্য মোহনাগুলোতে লাইট হাউস থাকে। যেখান থেকে সিগন্যাল দেয়া হয় এ পথে না, আপনি এই পথে যাবেন। মাহফুজ উল্লাহ সাহেব ছিলেন তেমনই একজন মানুষ।’

আয়োজক সংগঠনের সহ-সভাপতি খলিলুর রহমান ইব্রাহিমের সভাপতিত্বে এবং সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক এম জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় স্মরণসভায় শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমাতুল্লাহ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, মৎস্যজীবী দলের সদস্য ইসমাইল হোসেন সিরাজী প্রমুখ বক্তব্য দেন।