‘ফণী’র কারণে সচিবালয় খোলা

0
788

ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’র কারণে সাপ্তাহিক ছুটি বাতিল করে আজ শুক্রবার (৩ মে) সচিবালয় খোলা রাখা হয়েছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় এবং  নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়সহ দুর্যোগ মোকাবিলা সংশ্লিষ্ট সব মন্ত্রণালয় আজ খোলা রাখা হয়েছে। একই সঙ্গে ঘূর্ণিঝড়ের কারণে ঝুঁকিতে থাকা ১৯ জেলায় এসব মন্ত্রণালয়ের সব অফিস খোলা রাখা হয়েছে এবং কর্মকর্তা কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।  

‘ফণী’র কারণে এই সপ্তাহে শুক্র ও শনি সপ্তাহিক ছুটি বাতিল করে সচিবালয় খোলা রাখা হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগসহ সংশ্লিষ্ট সব বিভাগ- অর্থ মন্ত্রণালয়, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, পরিবেশ মন্ত্রণালয়, পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, কৃষি মন্ত্রণালয়, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের একটি করে উইং জরুরি ভিত্তিতে খোলা রাখা হয়েছে।

ইতোমধ্যে অফিস শুরু করেছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান। আজ শুক্রবার বেলা ১২টায় দুর্যোগ ব্যবস্থা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে জরুরি সংবাদ সম্মেলন করবেন প্রতিমন্ত্রী। ‘ফণী’র সর্বশেষ পরিস্থিতি জানাতে এই সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয়েছে।    

এদিকে নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী নিজের সংসদীয় এলাকা দিনাজপুরে অবস্থান করছেন।

ফণী’র প্রভাব সার্বক্ষণিকভাবে জানতে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ে কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ে আওতায় বিআইডব্লিউটিএ’র কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। নৌ মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে দেশের সব জায়গায় নৌচলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তার দফতর থেকে এই ১৯ জেলার সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ রক্ষা করা হচ্ছে। সার্বক্ষণিক খোঁজখবর নেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’র প্রভাবে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টির খবর পাওয়া গেছে। আজ শুক্রবার (৩ মে) সারা দিনই থেমে থেমে দেশের বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। মধ্যরাতের দিকে ‘ফণী’ উপকূলীয় এলাকা দিয়ে প্রবেশ করে বাংলাদেশে আঘাত হানতে পারে বলে ঘূর্ণিঝড়ের সতকবার্তায় জানানো হয়েছে।