শিমুলতলা জোনাল অফিস ‘আালোর ফেরিওয়ালা’ কার্যক্রমে সাড়ে ৩শ’ বিদ্যুতের মিটার সংযোগ দিয়েছে

0
346

স্টাফ রিপোর্টার : ‘শেখ হাসিনার উদ্যোগ, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ’ প্রধানমন্ত্রীর এ শ্লোগানকে বাস্তবায়ন করতে সাভারে শিমুলতলা জোনাল অফিস ঘরে ঘরে বিদ্যুত পৌঁছে দিচ্ছে আলোর ফেরিওয়ালা। আজ  বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সপ্তাহব্যাপী এ কার্যক্রমের শেষ দিনে পৌর এলাকার ডগরমোড়া, স্মরণিকা আবাসিক এলাকা, চাপাইন, শাহীবাগসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করছেছে। শিমুলতলা জোনাল অফিসের উদ্যোগে ‘আলোর ফেরিওয়ালা’  কার্যক্রমের মাধ্যমে এখন পর্যন্ত সাড়ে ৩শ’ বিদ্যুতের মিটার সংযোগ দিয়ে এলাকায় ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। এ কার্যক্রমের ফলে বিদ্যুৎ প্রত্যাশী কৃষক, গৃহস্থ্য বাড়ী মালিক কিংবা ব্যবসায়ি সকলেই প্রয়োজন মতো সংযোগ নিচ্ছেন নিজ নিজ গৃহে।

শিমুলতলা জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার টি এম মেজবাহ উদ্দিন জানান, জামানত জমাদানের মাত্র ৫ মিনিটের মধ্যে গ্রাহদের বাড়িতে গিয়ে জোনাল অফিসের কর্মীগণ বিদ্যুতের মিটার ও তার সংযোগ দিয়ে ঘরে বাতি জ্বেলে দিচ্ছেন।  পল্লী বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত এ কার্যক্রম বাস্তবায়নে তৎপর বলে জানান তিনি। দেখা গেছে, ওয়্যারিং পরিদর্শক. লাইনম্যানসহ অন্যান্য কর্মীগন স্পটে গিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ দিচ্ছেন। এলাকার বিদ্যুৎ সংযোগ পাওয়া গ্রাহকরা জানান, এতো কম সময়ে বিদ্যুতের লাইন পাওয়া যাবে তা আগে কখনই কল্পনা করতে পারি নাই।

শিমুলতলা জোনাল অফিস সূত্রে জানা গেছে, জামানত বাবদ ৮৫০ টাকা জমাদানের মাত্র ৫ মিনিটের মধ্যেই গ্রাহদের বাড়িতে গিয়ে বিদ্যুতের মিটার ও তার সংযোগ দিয়ে ঘরে বাতি জ্বেলে দিচ্ছেন পল্লী বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারী। এতে করে গ্রাহকদের এখন আর বিদ্যুৎ অফিসে যেতে হচ্ছে না। বিদ্যুৎ বিভাগের এমন উদ্যোগ্যটি এলাকায় ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। একটি ভ্যানের ‘আলোর ফেরিওয়ালা’ নামে পাঁচ মিনিটে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ কার্যক্রম চলছে পুরোদমে। প্রত্যেক ভানের সঙ্গে একজন ওয়্যারিং পরিদর্শক, দু’জন লাইনম্যান ও ওয়্যারিংম্যান।

সরেজমিনে পরিদর্শকালে ডগরমোড়া এলাকার বিদ্যুৎ সংযোগ পাওয়া কবির হোসেন মাতুব্বর জানান দীর্ঘদিন তার বাসায় দুটি মিটারের জন্য তিনি ঘর ওয়্যারিং করে রেখেছিলেন। কিন্তু সময়ে অভাবে তার অফিসে যাওয়া হয়নি। আলোর ফেরিওয়ালা কার্যক্রমের ফলে তার দীর্ঘদিনের অলোসতা ভেঙ্গে এখন নিজ বাড়ীতে বসেই বিদ্যুৎ সংযোগ পেয়েছেন।

সাভার নিউ মার্কেটের পেছনে আরেক গ্রাহকও একই সুরে জানান, আলোর ফেরিওয়ালা কার্যক্রমের ফলে তিনি নিজ বাড়ীতে বসেই বিদ্যুৎ সংযোগ পেয়েছেন। এ কার্যক্রমকে স্বাগত জানিয়ে এলাকার বাসিন্দা আলমগীর হোসেন, শাহজাহান মিয়া, জাহিদ হাসানসহ বেশ কয়েকজন জানান, শিমুলতলা জোনাল অফিসের আলোর ফেরিওয়ালা কার্যক্রমের ফলে মানুষ ঘরে বসেই বিদ্যুৎ পাচ্ছেন। যা ইতিপূর্বে আর কথনও দেখা যায়নি। এখন আর কষ্ট করে বিদ্যুৎ অফিসে যেতে হচ্ছে না। বিদ্যুৎ বিভাগের এমন সেবা পেয়ে গ্রাহকরা বেজায় খুশি। এতে করে গ্রাহকদের সময় ও কষ্ট করে অফিসে যাওয়ার ঝামেলা দুটিই সাশ্রয় হচ্ছে।