ডিভোর্স নিয়ে আইনি পদক্ষেপ নিচ্ছেন প্রিয়াঙ্কা

0
207

বিয়ের তিন মাস পার হতে না হতেই প্রিয়াঙ্কা-নিকের সংসার ভাঙার গুঞ্জন উঠেছে। সম্প্রতি এক মার্কিন ম্যাগাজিন এ ধরনের খবর প্রকাশ করে। এই তারকা দম্পতির বিচ্ছেদের প্রথম খবরটি প্রকাশ করে আমেরিকার ‘ওকে’ ম্যাগাজিন। প্রিয়াঙ্কা-নিকের ভক্তরা এমন খবর শুনেই বেশ চমকে ছিলেন, মনে কষ্টও পেয়েছেন তারা।

আর এই খবর প্রকাশের পর ভীষণ রেগেছেন নায়িকা প্রিয়াঙ্কা। ওই ম্যাগাজিনের বিরুদ্ধে এবার আইনি পদক্ষেপ নিতে চলেছেন তিনি। আইনজীবীর মতে, দু’জনেরই পাবলিক ইমেজ নষ্ট করার ক্ষতিপূরণ দাবি করা হবে।

প্রিয়ঙ্কার এক ঘনিষ্ঠ সূত্রের দাবি, সাধারণত সমালোচনাকে এড়িয়ে চলেন এই নায়িকা। কিন্তু এই খবর প্রকাশিত হওয়ার পর তিনি কষ্ট পেয়েছেন।

ওই ম্যাগাজিনের নিউজে লেখা হয়েছিল, শুধু টাকার জন্যই প্রিয়াঙ্কা বিয়ে করেছেন। বিয়ের পর নিকের সব সিদ্ধান্তই প্রিয়াঙ্কা নিচ্ছিলেন। নিকের নিজস্ব মতামতের কোন গুরুত্ব থাকছিল না। সে কারণেই তাদের দাম্পত্যে সমস্যা দেখা দিয়েছিল।

নায়িকার দাবি, এমন খবরে তার এতদিনের তৈরি ইমেজ নষ্ট হয়েছে। ফলে ম্যাগাজিনের বিরুদ্ধে বড় অঙ্কের ক্ষতিপূরণ দাবি করবেন তিনি।

সম্প্রতি আটলান্টায় জোনাস ব্রাদার্সের শো-এ গিয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা। সেখানে নিক ছাড়াও তার দুই ভাই জো এবং কেভিন উপস্থিত ছিলেন। মঞ্চ থেকেই ইঙ্গিতে প্রিয়াঙ্কাকে ‘আই লভ ইউ’ বলেন নিক। ওই কনসার্ট চলাকালীন এক নারী ভক্ত নিকের দিকে নিজের অন্তর্বাস ছুড়ে দেন। তা নিজের হাতে নিককে পৌঁছে দেন প্রিয়াঙ্কা। এই ঘটনায় একটুও বিরক্তি ছিল না প্রিয়ঙ্কার মুখে। বরং ছবি দেখে অনেকেরই মনে হয়েছে, তিনি বেশ মজা পেয়েছেন।

প্রিয়াঙ্কা নিকের এমন কোন আচরণ এখনো ধরা পড়েনি, যেটা দেখে মনে হতে পারে তাদের সংসার ভেঙে যাচ্ছে। এখন পর্যন্ত শুধুই তাদের ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। নিয়মিতই স্বামী নিকের ছবি টুইটারে পোস্ট করেন প্রিয়াঙ্কা। নিকের কোনো অনুষ্ঠানেও নিজ উৎসাহেই ছুটে যান তিনি। তাদের ভক্তরাও চান তাদের ভালোবাসা দীর্ঘজীবী হোক। এমন ভালোবেসেই সারা জীবন কাটুক তাদের।