খালেদা এত অসুস্থ হলেন কীভাবে, প্রশ্ন রিজভীর

0
76

স্টাফ রিপোর্টার : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কারাবন্দি বেগম খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে সন্দেহ পোষণ করেছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী আহমেদ। তিনি বলেন, সুস্থ অবস্থায় বেগম জিয়া কারাগারে গিয়েছিলেন, আজকে তিনি মারাত্মক অসুস্থ। তাকে হুইল চেয়ার ব্যবহার করতে হচ্ছে। আমাদের কাছে ভয় হচ্ছে সরকার কারাগারের মধ্যে তাকে চিকিৎসার নামে অন্য কিছু করছেন কি-না? তিনি এত গুরুতর অসুস্থ হলেন কীভাবে?

পবিত্র শবে মেরাজ উপলক্ষে বুধবার (৩ এপ্রিল) নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নিচে অনুষ্ঠিত এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে বিএসএমএমইউ’র চিকিৎসকদের সমালোচনা করে রিজভী বলেন, বেগম জিয়া কারাগারে থাকা অবস্থায় সরকারি ডাক্তার অনেকেই গিয়েছেন। গিয়ে বলেছেন, তিনি (খালেদা জিয়া) অত্যন্ত অসুস্থ। এখন তিনি পিজি হাসপাতালে আসার সাথে সাথেই সেখানকার পরিচালক বলে দিয়েন, তিনি (খালেদা জিয়া) খুব একটা অসুস্থ নন। কোনো রকম পরীক্ষা হলো না, কেনো ধরনের ডায়াগনোসিস হলো না কিন্তু পরিচালক বলে দিলেন, তার অসুস্থতা গুরুতর নয়।

বিএসএমএমইউ হাসপাতাল পরিচালকের সমালোচনা করে তিনি আরও বলেন, পরিচালক তো নিজের মুখে বলছেন না; শেখ হাসিনা যা বলে দিচ্ছেন, সরকার যেটা বলে দিচ্ছে সেই কথাই পিজির পরিচালক বলছেন। এই জন্যই বলছেন, তার চাকরি রক্ষা করার জন্য, তার পথ ধরে রাখার জন্য। মানুষকে মৃত্যুর মুখোমুখি ঠেলে দিয়েও দেশের ডাক্তাররা নিজের পথ ধরে রাখার জন্য শেখ হাসিনার ভাষায় কথা বলছেন।

খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করে রিজভী বলেন, বেগম জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি চাই, মুক্তি তো দিতেই হবে। সরকারের ময়ূরী সিংহাসন কাপতে শুরু করেছে। যেকোনো সময় হুরমুর করে ভেঙে পড়বে।

পুলিশের সমালোচনা করে বিএনপির এ নেতা বলেন, আজকে বিচারের দায়িত্ব নিয়েছেন থানার ওসিরা। মাননীয় আদালত বলেছেন, থানার ওসিরা যদি থানার মধ্যে আদালত বসিয়ে বিচার কার্যক্রম পরিচালনা করেন তাহলে আদালতের দরকার কী? আমি মাননীয় আদালতকে বলবো, এটা তো অনেক দিন থেকেই পরিকল্পিতভাবে করা হচ্ছে। যেখানে জনগণ কোনো ফ্যাক্টর নয়, জনগণ কোনো শক্তি নয়। যেখানে জনমতের কোনো পরোয়া করা হয় না, সেখানে তো আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী তারাই তো বিচার কাজ পরিচালনা করবেন।

তিনি আরও বলেন, একটি আধুনিক গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে আইন বিভাগ, বিচার বিভাগ এবং নির্বাহী বিভাগ এদের মধ্যে ক্ষমতার ভারসাম্য আছে, সেই সমস্ত ভারসাম্য ভেঙে দিয়েছেন শেখ হাসিনা। তিনি এগুলো কিছুই মানেন না, কারণ তিনি হচ্ছেন সুপ্রিম কোর্টের চিফ জাস্টিসের চাইতেও মহা চিফ জাস্টিস। তাকে যারা ক্ষমতায় রেখেছেন, যারা মিড নাইট নির্বাচন করিয়ে দিয়েছেন, যারা মধ্য রাতে নির্বাচনে আবারও ক্ষমতায় এনেছেন তাদের ক্ষমতা অপরিসীম।

বনানীর অগ্নিকা-ের কথা উল্লেখ করে রিজভী বলেন, শিশু বাচ্চাকে দিয়ে মিথ্যা কথা সরকার বলিয়েছে। সরকারের এজেন্সি বলিয়েছে। এভাবে চলতে পারে না। জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের পরিচালনায় দোয়া মাহফিলে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, ওলামা দলের সাধারণ সম্পাদক হাফেজ নেছারুল হক, কৃষক দলের সদস্য সচিব কৃষিবিদ হাসান জাফির তুহিন প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।