বৃহত্তর ঐক্য গড়তে চায় বামপন্থী ছাত্রজোট

আসন্ন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল ছাত্র সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ১১ দফা প্রস্তাবনা দিয়েছে বামপন্থী ছাত্র সংগঠনগুলোর মোর্চা প্রগতিশীল ছাত্র জোট ও সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী ছাত্র ঐক্য।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে রোববার সংবাদ সম্মেলনে এ দফাগুলো তুলে ধরেন প্রগতিশীল ছাত্রজোটের সমন্বয়ক ও বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর কেন্দ্রীয় সভাপতি ইকবাল কবীর। সংবাদ সম্মেলনে সাম্রাজ্যবাদবিরোধী ছাত্র ঐক্যের সমন্বয়ক ও বিপ্লবী ছাত্র-যুব আন্দোলনের সভাপতি আতিফ অনীক, ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক লিটন নন্দী, ছাত্র ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি গোলাম মোস্তফা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় ইকবাল কবীর বলেন, ‘উত্থাপিত ১১ দফা ঘোষণাপত্রের সঙ্গে যে সমস্ত ছাত্র সংগঠন একমত হতে সম্মতি প্রকাশ করবে তাদের নিয়ে বৃহত্তর ঐক্য করবে প্রগতিশীল ছাত্র জোট ও সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী ছাত্র ঐক্য। আমরা চাই সবার সক্রিয় অংশগ্রহণে একটি সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন। যেখানে ছাত্রদের অধিকার নিয়ে যারা কাজ করবে তারা বিজয়ী হবে।’

এ সময় আবারও ভোটকেন্দ্র হলের বাইরে করা দাবি জানান তিনি।

ইকবাল কবির সাংবাদিকদের সামনে বামজোটের পক্ষ থেকে ১১ দফা তুলে ধরেন। দফাগুলোর মধ্যে রয়েছে- সন্ত্রাস, দখলদারি ও প্রশাসনিক স্বৈরতন্ত্রমুক্ত গণতান্ত্রিক বিশ্ববিদ্যালয়, মেধা ও প্রয়োজনের ভিত্তিতে প্রশাসনিক তত্ত্বাবধানে প্রথম বর্ষ থেকে বৈধ সিটের ব্যবস্থা, গেস্টরুম ও গণরুমে ছাত্র নির্যাতন বন্ধ, মতপ্রকাশের স্বাধীনতা ও ছাত্রসংগঠনগুলোর সহাবস্থান নিশ্চিত, বিশ্ববিদ্যালয়ের সব বাণিজ্যিক কোর্স বন্ধ, শিক্ষা-গবেষণা ও ছাত্র অধিকার সংশ্লিষ্ট খাতে বরাদ্দ বাড়ানো, ইউজিসির কৌশলপত্র বাতিল, ধর্মভিত্তিক, সাম্প্রদায়িক, জাতিগত ও লৈঙ্গিক বৈষম্য সৃষ্টিকারী অপতৎপরতা নিষিদ্ধ, ১৯৭৩-এর অধ্যাদেশের অসম্পূর্ণতা দূর করে বিশ্ববিদ্যালয়ের পূর্ণাঙ্গ স্বায়ত্তশাসন নিশ্চিত, উচ্চশিক্ষা কমিশনের অপতৎপরতা প্রতিরোধ, শিক্ষা-চিকিৎসাসহ মৌলিক অধিকার নিয়ে ব্যবসা বন্ধ, শিক্ষার সব স্তরে বেসরকারিকরণ, বাণিজ্যিকীকরণ ও সাম্প্রদায়িকীকরণ বন্ধ করে সর্বজনীন বিজ্ঞানভিত্তিক ধর্মনিরপেক্ষ গণতান্ত্রিক একই পদ্ধতির শিক্ষানীতি, শিক্ষা শেষে কর্মসংস্থানের নিশ্চয়তা, তা না হলে বেকার ভাতার ব্যবস্থা, গণমানুষের ন্যায্য আন্দোলনে সংহতি জ্ঞাপন, শাসক শ্রেণির নয়, শ্রমিক-কৃষক-জনগণের মুক্তিযুদ্ধের আকাঙ্ক্ষায় সমতা, সামাজিক ন্যায়বিচার ও শোষণমুক্ত সমাজ বিনির্মাণ।

এদিকে ডাকসু নির্বাচনে বৃহত্তর ঐক্য গড়ার লক্ষ্যে গতকাল শনিবার বিকেলে টিএসসির মুনীর চৌধুরী অডিটোরিয়ামে টিএসসির সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলোর সঙ্গে বসে বাম জোট। কিন্তু সভায় বাম জোটের মহানগর ও বিভিন্ন ইউনিটের সদস্য যারা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নয় বলে দাবি করে সভা থেকে বের হয়ে যায় সংগঠনগুলো।