সাতক্ষীরায় ভবনের নিচে মিললো পুরনো সিন্দুক

 

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি :  সাতক্ষীরার তালায় রেজিস্ট্রি অফিসের পুরনো ভবন ভেঙে সরাতে গিয়ে মাটি খুঁড়ে পাওয়া গেছে একটি লোহার সিন্দুক, যা আলোচনার জন্ম দিয়েছে সোমবার বিকালে তালা উপজেলার ইসলামকাটি ইউনিয়নের রেজিস্ট্রি অফিসের পুরনো ভবন ভাঙার সময় তালাবন্ধ সিন্দুকটি পাওয়া যায়।

তালা থানার ওসি মেহেদী রাসেল বলেন, সিন্দুকটি এখনও খুলে দেখা হয়নি। ভেতরে কী থাকতে পারে তা নিয়ে চলছে নানা জল্পনা কল্পনা  ইসলামকাটি গ্রামের বাসিন্দা বাবু লাল ঘোষের বয়স ১০০ বছরের কাছাকাছি। তিনি জানান, জমিদার সুরীন্দ্রনাথ চক্রবর্তী তার ব্যবসায়িক কাজে ওই জমিতে একটি ভবনটি নির্মাণ করেছিলেন দেড়শ বছর আগে। ওই সময় তিনি বড় ব্যবসায়ী ছিলেন।

১৯২৬ সালে ওই ভবনে পোস্ট অফিস করা হয়। এরপর করা হয় রেজিস্ট্রি অফিস। দেশ ভাগের আগে জমিদার সুরীন্দ্রনাথ চক্রবর্তী কলকাতায় মারা যান। কয়েক হাজার বিঘা জমি আর বাড়িঘর ফেলে ভারতে চলে যান তার পরিবারের সবাই। ভবন ভাঙতে গিয়ে পাওয়া সিন্দুকে দেড়শ বছর আগের মুদ্রা বা দলিলপত্র থাকতে পারে বলে বাবু লাল ঘোষের ধারণা। এদিকে সিন্দুক পাওয়ার খবরে আশপাশের বিভিন্ন এলাকা থেকে কৌতুহলী মানুষ সোমবার বিকালে ইসলামকাটি ইউনিয়নের পুরনো রেজিস্ট্রি অফিসে ভিড় করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরিনও সেখানে উপস্থিত হন। তালা থানার ওসি মেহেদী রাসেল বলেন, “সিন্দুকটি পুলিশের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে কী আছে তা বাইরে থেকে দেখে বলা সম্ভব না। তবে এখানে আগে হিন্দু বসতি ছিল। হতে পারে এটা সেই সময়ের। সিন্দুকটি প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তরের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান।সোমবার বিকালে তালা উপজেলার ইসলামকাটি ইউনিয়নের রেজিস্ট্রি অফিসের পুরনো ভবন ভাঙার সময় তালাবন্ধ সিন্দুকটি পাওয়া যায়।

তালা থানার ওসি মেহেদী রাসেল বলেন, সিন্দুকটি এখনও খুলে দেখা হয়নি। ভেতরে কী থাকতে পারে তা নিয়ে চলছে নানা জল্পনা কল্পনা। ইসলামকাটি গ্রামের বাসিন্দা বাবু লাল ঘোষের বয়স ১০০ বছরের কাছাকাছি। তিনি জানান, জমিদার সুরীন্দ্রনাথ চক্রবর্তী তার ব্যবসায়িক কাজে ওই জমিতে একটি ভবনটি নির্মাণ করেছিলেন দেড়শ বছর আগে। ওই সময় তিনি বড় ব্যবসায়ী ছিলেন। ১৯২৬ সালে ওই ভবনে পোস্ট অফিস করা হয়। এরপর করা হয় রেজিস্ট্রি অফিস। দেশ ভাগের আগে জমিদার সুরীন্দ্রনাথ চক্রবর্তী কলকাতায় মারা যান। কয়েক হাজার বিঘা জমি আর বাড়িঘর ফেলে ভারতে চলে যান তার পরিবারের সবাই। ভবন ভাঙতে গিয়ে পাওয়া সিন্দুকে দেড়শ বছর আগের মুদ্রা বা দলিলপত্র থাকতে পারে বলে বাবু লাল ঘোষের ধারণা।

এদিকে সিন্দুক পাওয়ার খবরে আশপাশের বিভিন্ন এলাকা থেকে কৌতুহলী মানুষ সোমবার বিকালে ইসলামকাটি ইউনিয়নের পুরনো রেজিস্ট্রি অফিসে ভিড় করেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরিনও সেখানে উপস্থিত হন। তালা থানার ওসি মেহেদী রাসেল বলেন, “সিন্দুকটি পুলিশের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে কী আছে তা বাইরে থেকে দেখে বলা সম্ভব না। তবে এখানে আগে হিন্দু বসতি ছিল। হতে পারে এটা সেই সময়ের।

সিন্দুকটি প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তরের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান।সোমবার বিকালে তালা উপজেলার ইসলামকাটি ইউনিয়নের রেজিস্ট্রি অফিসের পুরনো ভবন ভাঙার সময় তালাবন্ধ সিন্দুকটি পাওয়া যায়। তালা থানার ওসি মেহেদী রাসেল বলেন, সিন্দুকটি এখনও খুলে দেখা হয়নি। ভেতরে কী থাকতে পারে তা নিয়ে চলছে নানা জল্পনা কল্পনা। ইসলামকাটি গ্রামের বাসিন্দা বাবু লাল ঘোষের বয়স ১০০ বছরের কাছাকাছি। তিনি জানান, জমিদার সুরীন্দ্রনাথ চক্রবর্তী তার ব্যবসায়িক কাজে ওই জমিতে একটি ভবনটি নির্মাণ করেছিলেন দেড়শ বছর আগে। ওই সময় তিনি বড় ব্যবসায়ী ছিলেন। ১৯২৬ সালে ওই ভবনে পোস্ট অফিস করা হয়।

এরপর করা হয় রেজিস্ট্রি অফিস।”দেশ ভাগের আগে জমিদার সুরীন্দ্রনাথ চক্রবর্তী কলকাতায় মারা যান। কয়েক হাজার বিঘা জমি আর বাড়িঘর ফেলে ভারতে চলে যান তার পরিবারের সবাই। ভবন ভাঙতে গিয়ে পাওয়া সিন্দুকে দেড়শ বছর আগের মুদ্রা বা দলিলপত্র থাকতে পারে বলে বাবু লাল ঘোষের ধারণা। এদিকে সিন্দুক পাওয়ার খবরে আশপাশের বিভিন্ন এলাকা থেকে কৌতুহলী মানুষ সোমবার বিকালে ইসলামকাটি ইউনিয়নের পুরনো রেজিস্ট্রি অফিসে ভিড় করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরিনও সেখানে উপস্থিত হন। তালা থানার ওসি মেহেদী রাসেল বলেন, “সিন্দুকটি পুলিশের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে কী আছে তা বাইরে থেকে দেখে বলা সম্ভব না। তবে এখানে আগে হিন্দু বসতি ছিল। হতে পারে এটা সেই সময়ের।”সিন্দুকটি প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তরের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান। সোমবার বিকালে তালা উপজেলার ইসলামকাটি ইউনিয়নের রেজিস্ট্রি অফিসের পুরনো ভবন ভাঙার সময় তালাবন্ধ সিন্দুকটি পাওয়া যায়।

তালা থানার ওসি মেহেদী রাসেল বলেন, সিন্দুকটি এখনও খুলে দেখা হয়নি। ভেতরে কী থাকতে পারে তা নিয়ে চলছে নানা জল্পনা কল্পনা। ইসলামকাটি গ্রামের বাসিন্দা বাবু লাল ঘোষের বয়স ১০০ বছরের কাছাকাছি। তিনি জানান, জমিদার সুরীন্দ্রনাথ চক্রবর্তী তার ব্যবসায়িক কাজে ওই জমিতে একটি ভবনটি নির্মাণ করেছিলেন দেড়শ বছর আগে। ওই সময় তিনি বড় ব্যবসায়ী ছিলেন।

১৯২৬ সালে ওই ভবনে পোস্ট অফিস করা হয়। এরপর করা হয় রেজিস্ট্রি অফিস।” দেশ ভাগের আগে জমিদার সুরীন্দ্রনাথ চক্রবর্তী কলকাতায় মারা যান। কয়েক হাজার বিঘা জমি আর বাড়িঘর ফেলে ভারতে চলে যান তার পরিবারের সবাই। ভবন ভাঙতে গিয়ে পাওয়া সিন্দুকে দেড়শ বছর আগের মুদ্রা বা দলিলপত্র থাকতে পারে বলে বাবু লাল ঘোষের ধারণা।

এদিকে সিন্দুক পাওয়ার খবরে আশপাশের বিভিন্ন এলাকা থেকে কৌতুহলী মানুষ সোমবার বিকালে ইসলামকাটি ইউনিয়নের পুরনো রেজিস্ট্রি অফিসে ভিড় করেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া আফরিনও সেখানে উপস্থিত হন। তালা থানার ওসি মেহেদী রাসেল বলেন, “সিন্দুকটি পুলিশের হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে কী আছে তা বাইরে থেকে দেখে বলা সম্ভব না। তবে এখানে আগে হিন্দু বসতি ছিল। হতে পারে এটা সেই সময়ের।”সিন্দুকটি প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তরের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান।