বাজারে নতুন স্মার্টফোন ‘মটোরোলা ওয়ান’

 

দেশের বাজারে আসছে মটোরোলার নতুন স্মার্টফোন ‘মটোরোলা ওয়ান’। অ্যান্ড্রয়েড ওয়ান প্ল্যাটফর্মের ফোনটিতে কোয়ালকম স্নাপড্রাগন ৬২৫ চিপসেট ও অক্টাকোর প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। ৫ দশমিক ৯ ইঞ্চির এইচডি প্লাস ম্যাক্স ভিশন নচ ডিসপ্লের স্মার্টফোনটিতে ৪ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি স্টোরেজ সুবিধা থাকছে।

মটোরোলার তথ্য অনুযায়ী, ফোনটিতে তিন হাজার মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। এতে ২০ মিনিট চার্জে ৬ ঘণ্টা ব্যাটারি ব্যাকআপ পাওয়া যায়। ফোনটির পেছনে ১৩ ও ২ মেগাপিক্সেলের ডুয়েল ক্যামেরা সেটআপ ও সামনে ডেপথ সেন্সিং প্রযুক্তিযুক্ত ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা যুক্ত করা হয়েছে। এতে রয়েছে গুগল লেন্স সার্চ, যা দিয়ে যেকোনো অবজেক্ট সার্চ করার স্বাধীনতা পাওয়া যাবে।

মটোরোলা ওয়ান’ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ওয়ান হওয়ায় অ্যান্ড্রয়েডের পরবর্তী দুটি আপডেট পাওয়ার নিশ্চয়তা দেবে গুগল। দেশের বাজারে ৫ জানুয়ারি থেকে রবিশপ, গেজেট অ্যান্ড গিয়ার এবং পিকাবু ডটকমে এটি পাওয়া যাবে। এর দাম হবে ২৩ হাজার ৯৯০ টাকা।

স্মার্টওয়াচের বাজারে আধিপত্য ধরে রেখেছে মার্কিন প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাপল। এ ক্ষেত্রে দ্রুত এগিয়ে আসছে অ্যাপলের প্রতিদ্বন্দ্বীরা। বাজার দখলের হিসাবে অ্যাপলের শেয়ার ৪৫ শতাংশের নিচে নেমে গেছে।

বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান এবিআই রিসার্চের সাম্প্রতিক এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে। ‘ওয়্যারেবল ডিভাইস মার্কেট শেয়ার ও ফোরকাস্টস রিপোর্ট’ নামের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বছরের দ্বিতীয় ও তৃতীয় প্রান্তিকে অ্যাপলের স্মার্টওয়াচের বাজার দখল ৪৩ দশমিক ৩৫ শতাংশে এসে ঠেকেছে।

অ্যাপলের পরের অবস্থানে রয়েছে স্মার্টওয়াচ নির্মাতা ফিটবিট। এর পরে রয়েছে হুয়াওয়ে ও স্যামসাং। বাজার দখলের হিসাবে এ তিনটি প্রতিষ্ঠান ৮ শতাংশ করে দখলে রেখেছে। এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। এবিআই রিসার্চের তথ্যানুযায়ী, ২০১৮ সালে চার কোটি ইউনিটের মতো স্মার্টওয়াচ বাজারে এসেছে।

বাজার বিশ্লেষকেরা বলছেন, এর আগেও স্মার্টওয়াচের বাজারের দখল হারিয়েছে অ্যাপল। কয়েক প্রান্তিক ধরে অ্যাপলের স্মার্টওয়াচের বাজার দখল কমতে দেখা যাচ্ছে। ২০১৭ সালের চতুর্থ প্রান্তিক ও ২০১৮ সালের প্রথম প্রান্তিকের তুলনায় ১৪ শতাংশ বাজার দখল কমেছে মার্কিন প্রতিষ্ঠানটির।

এবিআই রিসার্চের বিশ্লেষক স্টেফান টমসেট বলেন, স্মার্টওয়াচের বাজার যত বড় হচ্ছে, গ্রাহকেরা ততই অ্যাপল ছেড়ে অন্যান্য ব্র্যান্ডের দিকে ঝুঁকে পড়ছে। গত কয়েক প্রান্তিকজুড়ে অ্যাপলের বাজার দখল কমছে। ২০১৪ সালে অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ফোর আনার পর কিছু গ্রাহক টেনেছে অ্যাপল। এই ওয়াচের ফিচার অন্য ব্র্যান্ডের স্মার্টফোনে রয়েছে। এগুলোর দাম তুলনামূলকভাবে কম। তাই বাজারে তাদের দখল আরও বাড়তে পারে।

এবিআই রিসার্চের পূর্বাভাস অনুযায়ী, ২০১৮ সালে চার কোটি ইউনিট স্মার্টওয়াচ বিক্রি হলেও ২০২৩ সাল নাগাদ তা ৯ কোটি ৯০ লাখ ইউনিটে পৌঁছাবে।