বিয়ের অনুষ্ঠান করা হল না রুম্পার

চট্টগ্রামের হালি শহরের মেয়ে আক্তার জাহান রুম্পা (২৮)। পেশায় নারী চিকিৎসক। নতুন জীবন সাজাতে তিন মাস আগে নিজ অঞ্চলেরই চিকিৎসক কাজী মোহাম্মদ মহসীনের সঙ্গে বিয়ের পিড়িতে বসেন তিনি। কথা ছিল এই শীতেই ঘটা করেই বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করবেন দুজন। কিন্তু এক ধাক্কায় সেই স্বপ্নে পানি ঢেলে দিল কোনো এক ঘাতক যান।

ঘটনাটি আজ মঙ্গলবারের। ভোর সাড়ে চারটার সময় রাজধানীর বিজয় স্মরণী দিয়ে সিএনজি যোগে ধানমন্ডি যাচ্ছিলেন তিনি। এ সময় একটি গ্রীন লাইনের একটি ভলভো বাস তার ভাড়া করা সিএনজিতে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে রাস্তায় চলাফেরা করা জনতা ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে (ঢামেক) নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পরে রুম্পার ব্যাগ থেকে পাওয়া ঠিকানায় যোগাযোগ করে জানা যায়, ধানমন্ডিস্থ বাংলাদেশ চক্ষু হাসপাতালে ইন্টারভিউ দিতে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা আসেন তিনি। ভোরে সিএনজি যোগে ধানমন্ডিতেই যাচ্ছিলেন।

চট্টগ্রামের হালি শহরের মেয়ে হলেও জীবিকার প্রয়োজনে থাকতেন সিলেট। সেখানকার ওসমানী নগর বার্ড আই হাসপাতালে নামের একটি বেসরকারি ক্লিনিকে কর্মরত ছিলেন রুম্পা।

তেজগাঁও থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মিনহাজ উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ভোরে গ্রীন লাইনের একটি ভলভো বাস ওই নারীর ভাড়া করা সিএনজিকে ধাক্কা দেয়। পরে কয়েকজন মিলে তাকে ঢামেকে পাঠাই। কিছুক্ষণ পর জানতে পারি ওই নারী মারা গেছেন। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে আহত সিএনজি চালক পলাতক রয়েছেন বলেও জানান মিনহাজ।