বিএনপির গুলশানের কার্যালয়ে ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন, বিএনপি বলছে পরিকল্পিত

 বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে দলটি।

সোমবার রাত ১০টার দিকে এ তথ্য জানান বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ের গণমাধ্যম শাখার সদস্য শামসুদ্দিন দিদার।

শামসুদ্দিন দিদার বলেন, বিকাল ৩টা থেকেই চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ের ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন। এরপর থেকে লন্ডন থেকে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সঙ্গে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের স্কাইপে কথোপকথনও বন্ধ রয়েছে।

নির্বাচনী কার্যক্রমে বিঘ্ন ঘটাতে সরকারি নির্দেশে টেলি রেগুলেটরি কমিশন- বিটিআরসি এমন কাজ করেছে বলে অভিযোগ বিএনপির।

এদিকে দেশে ইন্টারনেটভিত্তিক যোগাযোগমাধ্যম স্কাইপি ব্যবহার করা যাচ্ছে না। বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) স্কাইপি বন্ধ করে দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিটিআরসির ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানান, কারিগরি ত্রুটির কারণে এমনটি হতে পারে। বিষয়টি দেখা হচ্ছে।

তবে ওই সূত্রগুলো নিজেদের নাম প্রকাশ করতে রাজি হয়নি বলে খবরে উল্লেখ করা হয়েছে।

ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার অ্যাসোসিয়েশনের একটি সূত্র জানিয়েছে, বিটিআরসির ওই নির্দেশনা পাওয়ার পর তারা স্কাইপি বন্ধ করে দিয়েছে। বর্তমানে বাংলাদেশে স্কাইপির সব সেবা বন্ধ রয়েছে।

তিনি বলেন, শুধুমাত্র স্কাইপি বন্ধ করা হলেও ভিডিও কনফারেন্স করার মতো অন্যান্য অনলাইন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো চালু রয়েছে।

উল্রেখ্য, গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলটির মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার শুরু হয়েছে রবিবার সকালে। ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকারে যোগ দিয়েছেন লন্ডনে অবস্থানরত তারেক রহমান।এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ইসির কাছে চিঠি দিয়েছিল আওয়ামী লীগ।