গর্ভবতী নারীরা যেসব খাবার ভুলেও খাবেন না

একজন নারী গর্ভধারণ করার পর থেকে তার বাচ্চা পৃথিবীতে আসার আগ পর্যন্ত অনেক কিছুই মেনে চলতে হয়। শুধু মায়েরাই জানেন, বাচ্চা জন্ম দেয়া কত বড় কঠিন একটি কাজ।আর সুস্থ একটি বাচ্চা জন্ম দেয়া আরো কঠিন। চলাফেরা, খাওয়া-দাওয়া, চিন্তা-চেতনা সবকিছুতেই বাড়তি সতর্ক থাকতে হয় গর্ভবতী মায়েদের। বিশেষ করে এই সময় তাদের খাবারের প্রতি অতিসচেতন থাকতে হয়। নাহলে বাচ্চার স্বাস্থ্যের সমস্যা দেখা দেয়। এমনকি বাচ্চার মস্তিষ্কেও ব্যাপক প্রভাব পড়ে।

তাই বাচ্চার স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে চাইলে, আপনাকে কিছু খাবার একদমই এড়িয়ে চলা উচিত। জুমবাংলার পাঠকদের জানাচ্ছি, কোন খাবারগুলো অতিরিক্ত খাওয়া গর্ভবতী মায়েদের জন্য মোটেই ঠিক নয়।

(১। যে মাছগুলো খাবেন না: সাধারণত দুই ধরনের মাছ খাওয়া থেকে বিরত থাকবেন।

ক) সামুদ্রিক মাছ: সামুদ্রিক বিভিন্ন মাছে রয়েছে অতিরিক্ত পারদ, যা বাচ্চার মস্তিষ্কের জন্য অনেক ক্ষতিকর।

(খ) দূষিত পরিবেশে বড় হওয়া মাছ: স্থানীয় দূষিত নদী, জলাশয় বা পুকুরে বড় হওয়া মাছ কিছুতেই খাওয়া যাবে না।

২। পনির: গর্ভবতী মায়েরা ভুলেও পনির খেতে যাবেন না । ফ্যাট জাতীয় এই খাবার আপনার গর্ভের বাচ্চার জন্য ঝুঁকিপূর্ণ।

৩। সি ফুড: সামুদ্রিক খাদ্য সাধারণত ফ্রিজে রেখে খেতে হয়। অন্যদের জন্য বা অন্য সময় আপনার জন্য সুস্বাদু হলেও গর্ভবতী অবস্থায় মায়েদের কখনো তা খাওয়া উচিত নয়। খেলে বাচ্চার স্বাস্থ্যের জন্য হানিকর হবে।

৪। ক্যাফেইন : অতিরিক্ত ক্যাফেইন জাতীয় কোনও খাবার খাবেন না। কারণ এটি বাচ্চার ওজন একেবারে কমিয়ে ফেলে।

৫। প্রস্তুতকৃত মাংস: প্রস্তুতকৃত মাংস, বিশেষ করে টিনের কৌটায় করে যে মাংস শপিংমলে বিক্রি হয়, তাতে সহজে ব্যাক্টেরিয়া সংক্রমিত হয়। তাই এসব খাওয়া থেকে যতটা সম্ভব গর্ভবতী মায়েদের দূরেই থাকা উচিত।

৬। ভেষজ পানীয় খাবেন না: ভেষজ উদ্ভিদের দ্বারা তৈরি যেকোনও পানীয় খাওয়া গর্ভের বাচ্চার জন্য ক্ষতিকর।

৭। অ্যালকোহল: যেসব পানীয়তে অ্যালকোহল রয়েছে, সেগুলো গর্ভবতী মায়েরা এড়িয়ে চলুন। কারণ এগুলো বাচ্চার স্বাভাবিক বৃদ্ধিতে মারাত্মক বাধা হয়ে দাঁড়ায়। 

তথ্যসূত্র: brightside.com