ভাঁজ করলে মোবাইল, খুললেই ট্যাবলেট

আজকাল মোবাইল ফোনের বিশেষ গুণের কারণে ট্যাবলেটের মতো নতুন ডিভাইসও পুরাতন মনে হচ্ছে। তারপরও অনেক কারণে আজো প্রয়োজন হচ্ছে ট্যাবের।

কিন্তু অনেকের পক্ষেই মোবাইল ও ট্যাব একসঙ্গে ব্যবহার করা সম্ভব হয় না। তা নানা কারণেই। এমন প্রয়োজনীয়তার কথা ভেবেই একই সঙ্গে ট্যাবলেট ও মোবাইল অর্থাৎ ভাঁজ করলে ট্যাব এবং খুললেই ট্যাবলেট সুবিধা রেখে নতুন ডিভাইস নিয়ে আসছে স্যামসাং।

জানা গেছে, এখন পর্যন্ত এই ফোনের কোনো নাম ঠিক করেনি কর্তৃপক্ষ। তবে অনেকের মতে এই ফোনের নাম হতে চলেছে, স্যামসাং গ্যালাক্সি এফ।

ফোনটি উপস্থাপনার সময় স্যামসাং সতর্ক ছিল এটির নকশা ফাঁস হওয়া নিয়ে। সেই জন্য কনফারেন্সের সময় সব আলোনিভিয়ে শুধু ডিসপ্লের উপর আলো ফেলা হয়েছিল। তবে এটির ৭.৩ অ্যামোলেড ডিসপ্লেটি অসাধারণ কিছু হতে চলেছে বলাই যায়।

এছাড়াও বাইরের দিকে ৪.৬ ইঞ্চির একটি অ্যামোলেড ডিসপ্লে আছে। যা মোবাইল ফোন হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। ডিভাইসটির ইনফিনিটি ফ্লেক্স ডিসপ্লে রয়েছে। এর সাহায্যে খুব সহজেই ভাঁজ করা যায়। ফলে এটিই একমাত্র ডিভাইস যেটাকে একই সঙ্গে ট্যাবলেট এবং স্মার্টফোন হিসাবে ব্যবহার করা যাবে।

ডিভাইসটির ইউ আই-কে স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট দুটোতেই ব্যবহার করার জন্য স্যামসাং একটি আলাদা ওয়ান ইউ আই তৈরি করেছে। এই নতুন ইন্টারফেসটি তৈরি করতে গুগল এবং অ্যান্ড্রয়েড ডেভেলপারদের সঙ্গে মিলে স্যামসাং তৈরি করেছে এই নতুন ওয়ান ইউ আই।

এই নতুন ইউ আই-এর ফলে স্মার্টফোনটি খুব সহজভাবেই ব্যবহার করা যাবে। ভাঁজ করলে সব অ্যাপ ফোনের নীচে চলে আসে এবং ডিভাইসটি বড় করে নিলে ইউ আই ট্যাবলেটের বড় স্ক্রীনের সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে নেয়।

তবে, ডিভাইসটির কোনো গ্লাস প্রোটেকশন নেই। যেটা আছে সেটাকে বলে পলিমার। যেটা কিনা খুব বেশি দিন চলে এবং খুবই ফ্লেক্সিবল।