তৈরি করুন মজাদার শীতের পিঠা

শীতের আগমনী বার্তার সাথে সাথে বাঙালির ঘরে ঘরে শীতের পিঠা তৈরীর উৎসব শুরু হয়। বিভিন্ন স্বাদের, বিভিন্ন ধরনের পিঠা ভোজন রসিকদের রসনা তৃপ্তিতে আবহমানকাল ধরেই প্রচলিত হয়ে আসছে।

গ্রামে এখনো ঘরে ঘরে শীতের পিঠা তৈরী হলেও শহরের যান্ত্রিকতার ভীড়ে শীতের পিঠা হারিয়ে গেছেই বলা যায়। অনেকে আবার এসব ঐতিহ্যবাহী পিঠার প্রস্তুত প্রণালীর জন্য তৈরী করতে পারেন না।

এই শীতে কেউ যেন মজাদার শীতের পিঠা থেকে বাদ না যায় তাই সবার কথা ভেবেই আমাদের এই প্রচেষ্টা।

আসুন জেনে নিন কীভাবে বানাবেন পিঠাপুলি…

উপকরণ: 

চালের গুঁড়া ৫০০ গ্রাম, দুধ দুই লিটার, খেজুরের গুড় এক কেজি বা স্বাদমতো, নারকেল কোরানো দুই কাপ, দারুচিনি দুই খণ্ড, এলাচ দুইটা, এবং তেজপাতা দুইটা।

প্রণালী:

প্রথমে দুধ ও গুড় জ্বাল দিয়ে ঘন করতে হবে, দুধের সাথে দুই খণ্ড দারুচিনি, দুইটা এলাচ, এবং দুইটা তেজপাতা দিলে ভাল হয়, এতে মজাদার একটা ফ্লেভার তৈরি হয়।

এবার কড়াইতে নারকেল, এক কাপ খেজুরের গুড়, ও এক টেবিল চামচ সরিষার খাঁটি তেল দিয়ে মিডিয়াম আঁচে জ্বাল দিন আর অনবরত নাড়তে থাকুন, নারকেল শুকিয়ে ঘন আর আঠালো হয়ে গেলে নামিয়ে ঠাণ্ডা হতে দিন।

এরপর একটা কড়াইতে দুই কাপ পানি আর পরিমানমতো লবন দিয়ে বলক আসার পরে চালের গুড়া দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে কাই বা খামির করে নিন। তারপর সেই কাই ভালো করে মথে নিয়ে ছোট ছোট করে রুটির মতো বানিয়ে ভেতরে নারকেলের পুর ভরে ভালো করে সাইড গুলো লাগিয়ে দিন।

এখন চুলায় জ্বাল দিয়ে রাখা দুধের আঁচ বাড়িয়ে বলক এলে পিঠা গুলো অল্প অল্প করে (একেবারে দিলে দলা ধরতে পারে) দিয়ে আঁচটা কমিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট জ্বাল দিন আর মাঝেমাঝে আলতো করে নেড়ে দেবেন।

পিঠা হলে নামিয়ে গরম অবস্থায় পরিবেশন করুন। ঠাণ্ডা করেও খাওয়া যায়।