১৫ ঘন্টা পর ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ, যা বললেন মাশরাফি

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ২৫৬ রানের লক্ষে ব্যাট করতে নেমে ১১৯ রানে অলআউট হয়েছে বাংলাদেশ। ফলে ১৩৬ রানের বড় ব্যবধানে হারল টাইগাররা। রশিদ খানের ঘূর্ণিতে একের পর এক উইকেট হারায় দলটি। এক রশিদ খানের কাছেই হেরেছে বাংলাদেশ।

আজ নিজেদের চতুর্থ ওভারের চতুর্থ বলে মুজিবকে লং অনের উপর দিয়ে মারতে গিয়ে ক্যাচ তুলে সাজঘরে ফিরেন ১৩ বলে ৭ রান করা অভিষিক্ত শান্ত। পঞ্চম ওভারের পঞ্চম বলে লিটন দাসকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন আফগান পেসার আফতাব আলম। খানিক বাদেই সাজঘরের পথ ধরেন মুমিনুলও। এরপর গুলবাদিন নাইবের বলে বোল্ড হয়ে ফিরে যান মিথুন। ২৩ তম ওভারে স্পিনার রশিদের বলে ব্যক্তিগত ৩২ রানে ফিরেন সাকিব।

উইকেটে থিতু হলেও রশিদ খানের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ৩০তম ওভারে বিদায় নেওয়ার আগে তিনি ৫৪ বলে করেন ২৭ রান। দলীয় ৯০ রানের মাথায় ষষ্ঠ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ইনিংসের ৩৪তম ওভারে রহমত শাহর বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ৪ রান করা মেহেদি হাসান মিরাজ।

দলীয় ১০০ রানে বাংলাদেশ হারায় সপ্তম উইকেট। মোহাম্মদ নবীর বল উড়িয়ে মারতে গিয়ে ০ রানেই ফেরেন মাশরাফি। আবু হায়দার রনি রান আউট হন। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে বিদায় নেন রুবেল হোসেন। মোসাদ্দেক ২৬ রানে অপরাজিত থাকেন।

ম্যাচ শেষে দলের শোচনীয় হারের জন্য শেষ ১০ ওভারের বাজে বোলিং ও অশৃঙ্খল ব্যাটিং লাইনআপকেই দায়ী করেছেন টাইগার অধিনায়ক।

এদিকে আগামীকাল বিকেলে ৫ টায় সুপার ফোরে ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। সে প্রসঙ্গে টাইগার অধিনায়ক বলেন, ‘এটা খুব কঠিন এত গরমে পরপর ২ ম্যাচের জন্য নিজেদের তৈরি করা। কিন্তু তবুও এখন আমাদের প্রস্তুত হতে হবে আগামীকালের ম্যাচের জন্য। তামিম বাড়িতে চলে গেছে। মুশফিক খুব ভালো বিশ্রাম পেয়েছে। মুস্তাফিজ ইনজুরি কাটিয়ে আগামীকাল মাঠে নামছে। তারা পরিপূর্ন ভাবেই মাঠে নামবে আগামীকালের ম্যাচে। আশা করছি পরবর্তী ম্যাচে আমরা খুব শক্তিশালী ভাবেই ফিরে আসবো এবং জয়ের জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করবো।’