প্রধানমন্ত্রীর অর্থ সহায়তা পেয়ে যা বললেন আফজাল শরিফ

‘গত চার-পাঁচ বছর ধরে আমি অসুস্থ। দেশে অনেক চিকিৎসা করিয়েছি। একাধিকবার দেশের বাইরে গিয়েছি চিকিৎসার জন্য। দেশের বাইরে উন্নত চিকিৎসার জন্য মাননীয় প্রধানন্ত্রীর কাছে সাহায্যের আবেদন করেছিলাম ১৫ তারিখ। তার মাত্র দুই দিন পর তিনি আমাকে অর্থ সহায়তা করেছেন। তার সঙ্গে আমার সাত মিনিট কথা হয়। তিনি খুব আন্তরিক ব্যবহার করেছেন। প্রধানমন্ত্রী এতো দ্রুত সাড়া দেবেন ভাবিনি। এমনকি তিনি পিজি হাসপাতালে নির্দেশ দিয়েছেন নিয়মিত আমার চিকিৎসার খোঁজ খবর জানাতে। ’

বুধবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে চিকিৎসার জন্য ২০ লাখ টাকার চেক পাওয়ার পর এভাবেই অনলাইন নিউজ পোর্টাল সারাবাংলা’র কাছে নিজের প্রতিক্রিয়া জানান চলচ্চিত্র অভিনেতা আফজাল শরিফ।

এর আগে গত শনিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুদান পাওয়ার জন্য আবেদন করেন আফজাল শরিফ। আবেদন করার দুই দিন পর সহায়তা পাওয়ায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তিনি।

চিকিৎসার জন্য ব্যাংকক যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন আফজাল শরিফ। কবে নাগাদ সেখানে যেতে পারেন? প্রশ্নের উত্তর তিনি বলেন,

‘আমার হাতে কয়েকটি সিনেমা এবং নাটকের কাজ রয়েছে। সেগুলোর কাজ শেষে করে এ বছরের ডিসেম্বরের দিকে যাওয়ার পরিকল্পনা করছি।’

বাংলাদেশে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি সাহায্যের জন্য এগিয়ে এসেছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন,

‘সেরকম কোন সাহায্য সহযোগিতা পাইনি। যদিও আমি ওরকমভাবে সাহায্য চাইনি। আমি বাংলাদেশ শিল্পী ঐক্যজোটের সিনিয়র সহ-সভাপতি। সবসময় শিল্পী ঐক্যজোট আমার পাশে থেকেছে। সংগঠনটির সভাপতি ডি এ তায়েব, সাধারণ সম্পাদক জি এম সৈকত সবসময় আমার বাসায় এসে খোঁজ খবর নিয়েছেন।’

আফজাল শরিফ অভিনীত কয়েকটি ছবি মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। আগামী ৫ অক্টোবর মুক্তি পাবে ‘পবিত্র ভালোবাসা’। নভেম্বরে মুক্তিপাবে ‘আমার মা আমার বেহেস্ত’ চলচ্চিত্র।

এখনো তিনি অসুস্থতার মধ্যে অভিনয় করছেন। যদিও অসুস্থ শরীর নিয়ে অভিনয় করতে কষ্ট হয় বলে জানান তিনি। তবে অভিনয়টা চালিয়ে যেতে চান এই গুনী অভিনেতা।

সূত্র : সারাবাংলা