সৌদিতে নারী সহকর্মীর সঙ্গে নাস্তা খাওয়ায় যুবক গ্রেফতার

ফুলকি ডেস্ক: সৌদি আরবে এক নারী সহকর্মীর সঙ্গে সকালের নাস্তা খাওয়ার ভিডিওকে ‘আপত্তিকর’ বলে অভিহিত করে ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।

 

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা মঙ্গলবার জানায়, ৩০ সেকেন্ডের ভিডিওটি জেদ্দার একটি হোটেলে ধারণ করা হয়েছে।

 

সৌদি আরবে হৈচৈ ফেলে দেয়া ভিডিওটিতে দেখা যায়, ওই যুবককে তার নারী সহকর্মী রুটি খাইয়ে দিচ্ছেন। এসময় ঠাট্টা-তামাশা ও হাসাহাসি করছিলেন।

 

রোববার ভিডিওটি সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যাওয়ার ওই মিশরীয় নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়। কর্মক্ষেত্রে নারী ও পুরুষদের মধ্যে দূরত্ব বজায় রাখার আইন ভঙ্গ করায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানায় স্থানীয় মিডিয়া।

 

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আপত্তিকর একটি ভিডিওতে অংশ নেয়ায় জেদ্দায় একজন প্রবাসীকে গ্রেফতার করেছে শ্রম মন্ত্রণালয়।’

 

পরে স্থানীয় আলহুরা টিভি জানায়, কর্মক্ষেত্রে যৌন নিপীড়নের দায়ে অভিযুক্ত করে ওই ব্যক্তিকে পাঁচ বছরের জেল দেয়া হতে পারে।

 

তবে ভিডিওর ওই নারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে নাকি নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলে জানায় আলজাজিরা।

 

সৌদি আরবে প্রকাশ্যে, কর্মক্ষেত্রে এবং রেস্তরাঁয় নারী ও পুরুষের মধ্যে দূরত্ব বজায় রাখার কঠোর বিধান রয়েছে। বিবাহিত নন এমন নারী পুরুষরা সেখানে আলাদা আলাদা জায়গায় বসতে বাধ্য।

 

ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে যাওয়ার সেখানকার অনেক রক্ষণশীল ব্যক্তি সামাজিক মাধ্যমে এর তীব্র সমালোচনা করেন। এরপর হাজার হাজার টুইটার ব্যবহারকারী মিশরীয় ওই ব্যক্তির সমর্থনে আরবি হ্যাশট্যাগ দিয়ে পোস্ট দেন।

 

সম্প্রতি সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান তার সরকারকে সংস্কারপন্থি হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে বিভিন্ন উদ্যোগ নেয়ার মধ্যেই সেখানে গ্রেফতারের এই ঘটনা ঘটলো।

 

আগে এবছর সৌদিতে নারীদের গাড়ি চালানোর উপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয়।

 

মানবাধিকার সংগঠনগুলো এসব পদক্ষেপকে স্বাগত জানালেও, সেখানে প্রচলিত ‘অভিভাবকত্বের নিয়ম বা মঁধৎফরধহংযরঢ় ংুংঃবস’ এর অবসান হওয়া উচিত বলে মনে করেন তারা।